শুক্রবার, ১৮ জুন ২০২১, ০৫:১৪ পূর্বাহ্ন

আইনমন্ত্রীর মাতার জানাজা নিয়ে ঘৃণ্য অপপ্রচারে আখাউড়ায় ছাত্রনেতা সানী কর্তৃক মামলা : অপরাধীদের গ্রেফতারে প্রচেষ্টা অব্যাহত

  • আপডেট টাইম : শনিবার, ২৫ এপ্রিল, ২০২০, ৬.৫১ পিএম
  • ১১৮ বার পঠিত

ইসমাঈল হোসেন (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) : মানুষ কতোটা হীন হলে পরে জানাজার ছবি নিয়ে মিথ্যা অপ্রপ্রচার চালাতে পারে? বঙ্গবন্ধুর ঘনিষ্ট সহচর এবং আইন, বিচার ও সংসদবিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হকের মাতা জাহানারা হকের জানাজার ভূয়া ছবি সৃজন করে একটি মহল ঘৃণ্য অপপ্রচার চালানোর বিষয়টি সারাদেশজুড়ে সর্বমহলে তীব্র প্রতিবাদের সৃষ্টি করে।

আর বিষয়টি অন্যানের মতো বাংলাদেশ ছাত্রলীগ, কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদের সাবেক সহ-সম্পাদক রেজাউল করিম সানিকে অত্যন্ত ব্যথিত করে।

ফলে অন্য জানাজার ছবি দিয়ে আইন, বিচার ও সংসদবিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হকের মায়ের জানাজার কথা উল্লেখ করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অপপ্রচারের ঘটনায় ছাত্রলীগের সাবেক কেন্দ্রীয় নেতা রেজাউল করিম সানি বাদী হয়ে আখাউড়া থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন মামলা দায়ের করেন।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, গত ১৮ এপ্রিল ভোররাতে আইনমন্ত্রীর মা জাহানারা হক ঢাকার অ্যাপেলো (এভার কেয়ার) হাসপাতালে মারা যান। ওইদিন বিকেলে ঢাকায় সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে সীমিত সংখ্যক লোকের উপস্থিতিতে জানাজার নামাজ অনুষ্ঠিত হয়।

পরে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় বনানী কবরস্থানে তার লাশ দাফন করা হয়। কিন্তু একটি কুচক্রি মহল অন্য একটি জানাজার নামাজের ছবি এডিট করে আইনমন্ত্রীর মায়ের জানাজার নামাজের সাথে যুক্ত করে ফেসবুকে অপপ্রচার করে আইনমন্ত্রী ও সরকারের ভাবমূর্তিকে প্রশ্নবিদ্ধ করার অপচেষ্টা চালায়।

আখাউড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রসুল আহমেদ নিজামী দৈনিক আমাদের বাংলা এবং জিএসএস নিউজের এ প্রতিবেদকসহ অন্যান্য গণমাধ্যমকে জানিয়েছিলেন , যে সব ফেসবুক আইডিতে থেকে অপপ্রচার চালানো হয়েছে সেসব আইডি কারা চালাচ্ছেন তাদের খুঁজে বের করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।এ নিউজ তৈরীর সময় সংশ্লিষ্ট মামলার আসামী অপপ্রচারকারীদের কাউকে গ্রেফতার করা না গেলেও তাদের গ্রেফতারে জোর তৎপরতা চলছে বলে জানা গেছে।

 

 

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

themesbazar1254120z

এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।

অত্র পত্রিকায় প্রকাশিত কোন সংবাদ কোন ব্যক্তি বা কোন প্রতিষ্ঠানের মানহানিকর হলে কর্তৃপক্ষ দায়ী নহে। সকল লেখার স্বত্ব ও দায় লেখকের।

Founder Md. Sakil