শুক্রবার, ২৫ জুন ২০২১, ১০:০৪ পূর্বাহ্ন

আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় মানুষ না খেয়ে থাকবে, এটা হয় না : বায়েজীদ-Dailyrupantorbd

  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ৯ এপ্রিল, ২০২০, ৯.২৭ পিএম
  • ১৫৬ বার পঠিত

রুপান্তর নিউজ ডেস্ক: করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে থমকে গেছে পুরো বিশ্ব। প্রতিদিন বাড়ছে এ ভাইরাসে আক্রান্ত রোগি ও মৃত্যুর সংখ্যা। বাংলাদেশে গত ২৪ ঘন্টায় নতুন আক্রান্ত হয়েছে ১১২। এনিয়ে ভাইরাসটিতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাড়ালো ৩৩০ জনে। এতে মৃত্যুর সংখ্যা ২১ জন। সুস্থ হয়েছেন ৩৩ জন।

করোনা ভাইরাসের সংক্রাম থেকে বাঁচতে সরকারি নির্দেশনায় গৃহবন্দি রয়েছে মানুষ। এসব কর্মহীন মানুষের মধ্যে যারা দিনে এনে দিনে খায় তারা বেশি বিপাকে রয়েছে। সম্প্রতি লক্ষ্মীপুর সদর আসনের প্রত্যেকটি ইউনিয়নে এ কর্মহীন দিনমজুরদের ঘরে ঘরে পৌঁছে গেছে সংসদ সদস্য একেএম শাহজাহান কামালের খাদ্য সামগ্রী। এসব সামগ্রী মানুষের ঘরে ঘরে পৌঁছে দিয়েছেন বায়েজীদ ভূঁইয়া। তিনি সংসদ সদস্যর এপিএস ও জেলা যুবলীগের সাবেক যুগ্ম আহবায়ক। এছাড়াও তিনি মুঠোফোনে কলের মাধ্যমে মানুষের দরজায় দরজায় খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দিচ্ছে।

জানা গেছে, গত ১২ দিন ধরে তিনি সদর উপজেলার প্রত্যেকটি ইউনিয়নে নেতাকর্মীদেরকে দায়িত্ব না দিয়ে নিজেই এমপির খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দিচ্ছেন। এরপর বিভিন্ন ইউনিয়ন থেকে তার কাছে খাদ্য সামগ্রীর সহযোগীতার জন্য কেউ ফোন করলে সরাসরি তার ঘরে নিয়ে পৌঁছে দেয়া হচ্ছে।

লক্ষ্মীপুর জেলা ছাত্রলীগের সাবেক আহবায়ক নজরুল ইসলাম ভুলু বলেন, বায়েজীদ ভূঁইয়া সদর আসনের পৌরসভাসহ প্রত্যেকটি ইউনিয়নে নেতাকর্মীদেরকে দায়িত্ব না দিয়ে নিজে ত্রাণ সামগ্রী পৌঁছে দিচ্ছেন মানুষের ঘরে ঘরে। তার এসব ত্রাণ সামগ্রী পেয়ে কর্মহীন মানুষরা সন্তুষ্ট রয়েছেন বলেও জানান এ নেতা।

জানতে চাইলে বায়েজীদ ভূঁইয়া বলেন, আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় মানুষ না খেয়ে থাকবে, এটা হয় না। লক্ষ্মীপুর সদর আসনের সংসদ সদস্য একেএম শাহজাহান কামালের পক্ষ থেকে দিনজুর কর্মহীন প্রত্যেক মানুষকে খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দিবো। করোনাভাইরাসের সংকট না যাওয়া পর্যন্ত সাধারণ মানুষের পাশে সহায়তা নিয়ে থাকবেন বলেও জানান বায়েজীদ ভূঁইয়া।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

themesbazar1254120z

এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।

অত্র পত্রিকায় প্রকাশিত কোন সংবাদ কোন ব্যক্তি বা কোন প্রতিষ্ঠানের মানহানিকর হলে কর্তৃপক্ষ দায়ী নহে। সকল লেখার স্বত্ব ও দায় লেখকের।

Founder Md. Sakil