রবিবার, ১৩ জুন ২০২১, ০২:২৯ পূর্বাহ্ন

ইবি প্রশাসনকে শিক্ষক সমিতির ধন্যবাদ জ্ঞাপন

  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ২ জুলাই, ২০২০, ৬.৪৯ পিএম
  • ৭২ বার পঠিত

দিদারুল ইসলাম রাসেল,ইবি প্রতিনিধিঃ

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের(ইবি)­ বর্তমান প্রশাসনের সার্বিক কর্মকান্ডে সন্তুষ্টু হয়ে শিক্ষক সমিতির পক্ষ থেকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করা হয়েছে। গত ২৯ জুন অনলাইনে শিক্ষক সমিতির কার্যনির্বাহী পরিষদের সভায় সর্বসম্মতিক্রমে এ ধন্যবাদ জ্ঞাপন করা হয়।

আজ বৃহস্পতিবার (০২ জুলাই) শিক্ষক সমিতির সভাপতি প্রফেসর ড. কাজী আখতার হোসেন স্বাক্ষরিত ধন্যবাদ পত্রটি প্রশাসনের নিকট প্রদান করা হয়।তথ্য,প্রকাশনা ও জনসংযোগ অফিস এ তথ্যটি নিশ্চিত করেছে।

প্রেরিত ধন্যবাদ পত্রে উল্লেখ করা হয় যে, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের বর্তমান প্রশাসন আগামী ২০ আগস্ট ২০২০ তারিখে ৪ বছর মেয়াদ পূর্ণ করতে যাচ্ছে। বিগত ৪ বছরে একটি সুদক্ষ নেতৃত্বের অধীনে প্রশংসাযোগ্য কৃতিত্বের সঙ্গে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় পরিচালিত হয়েছে। এই মেয়াদকালে প্রশাসনিক-একাডেমিক স্তর থেকে শুরু করে আর্থিক ও অবকাঠামোগত পর্যায়ে শৃঙ্খলা প্রতিষ্ঠাসহ যে অভূতপূর্ব উন্নতি সাধিত হয়েছে, তার জন্য কর্তৃপক্ষ সাধুবাদ লাভের যোগ্য। এ সময় বিশেষ করে বিশ্ববিদ্যালয়ের নেতিবাচক পরিচিতির পরিবর্তে একটি ইতিবাচক ভাবমূর্তি প্রতিষ্ঠত হয়েছে এবং একটি আঞ্চলিক বিশ্ববিদ্যালয় উন্নীত হয়েছে আন্তর্জাতিক বিশ্ববিদ্যালয়ে। এই সকল অর্জনের মাধ্যমে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় পরিবারকে মর্যাদাঋদ্ধ করার জন্য ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির পক্ষ থেকে বর্তমান প্রশাসনকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানানো হয়। সেই সঙ্গে এমন চৌকস একটি প্রশাসন উপহার দেওয়ায় জন্য মহামান্য চ্যান্সেলর, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, শিক্ষামন্ত্রী এবং ইউজিসিকে ও ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।
বর্তমানে বিশ্ববিদ্যালয়ের যে শিক্ষাসহ সার্বিক পরিবেশ বিরাজমান রয়েছে তা যেন অব্যাহত থাকে এ বিষয়ে সজাগ দৃষ্টিপাতের জন্য সংশ্লিষ্ট সকল মহলকে শিক্ষক সমিতি অনুরোধ জানায়।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

themesbazar1254120z

এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।

অত্র পত্রিকায় প্রকাশিত কোন সংবাদ কোন ব্যক্তি বা কোন প্রতিষ্ঠানের মানহানিকর হলে কর্তৃপক্ষ দায়ী নহে। সকল লেখার স্বত্ব ও দায় লেখকের।

Founder Md. Sakil