বুধবার, ০৪ অগাস্ট ২০২১, ০২:৩২ পূর্বাহ্ন

একজন মানবিক ডাক্তারের গল্প

  • আপডেট টাইম : রবিবার, ২১ জুন, ২০২০, ৭.৪৩ পিএম
  • ৫২৩ বার পঠিত

এম আহসানুর রহমান ইমন:-

করোনাভাইরাস সংক্রমণের পর সাধারণ মানুষের পাশাপাশি ডাক্তাররাও যখন রোগীর চিকিৎসা নিয়ে আতঙ্কে আছেন, সেই সময়ে একজন মানবিক ডাক্তারের প্রচেষ্টায় শুরু হয়েছে ফ্রী ট্রিটমেন্ট এবং ওষুধ । সেই মানবিক ডাক্তারের নাম মনিরুল ইসলাম ফিরোজ। তিনি তার নিজস্ব চেম্বার (বেনাপোল ২২ নং গেট এর সামনে এর অপজিটে ) এ কর্মরত আছেন । করোনাভাইরাস এর শুরু থেকেই সে মানুষের পাশেই আছে। সে অনেক চিন্তা করে একটা কথা ভাবলো । যে এই করোনার মধ্যে গরিব, অসহায় , দরিদ্রদের কত না কষ্ট হচ্ছে। একে দেশটা লকডাউন তাদের কাছে কোন অর্থ নাই। ঠিকমত তিনবেলা খেতেও পাচ্ছে না। তাহলে তারা ডাক্তারদের ট্রিটমেন্ট নেবে কিভাবে? তারা ডাক্তারকেও টাকা দিবে বাহ কি করে? এবং তারা ওষুধ খাবেও বা কীকরে?এই নিয়ে তার অনেক ভাবার পর সে চিন্তা করল ‌। মানুষতো মরণশীল। আমিও তো একদিন মরে যাব। এই মহামারী করোনা যুদ্ধে হয়তোবা আমিও মারা হতে পারি। যতদিন বেঁচে আছি ততদিন মানুষের পাশে থাকবো। তারপর সে শুরু করলো ফ্রী ট্রিটমেন্ট এবং ওষুধ সেবা। এরপর মানুষের মুখে এবং সামাজিক গণমাধ্যম ফেসবুকের বিভিন্ন ধরনের আলোচনায় ডাঃ মনির কে দেখতে পাওয়া যায়। একপর্যায়ে বেনাপোলে একজন প্রিয় মুখ মানবতার ফেরিওয়ালা হিসেবে পরিচিত হয়েছেন তিনি। একপর্যায়ে তার সাথে কথা বলে আমরা জানতে পারি। সে এতদিন ধরে সেবা দিয়ে আসছেন এবং আগামীতেও সেবা দিবে। এবং ওষুধের বিষয়টা সে আমাদেরকে বলল, বেনাপোলে অনেক বড় মনের মানুষ এবং সামর্থবান ব্যক্তিরা যদি আমাকে ওষুধের জন্য কিছু সাহায্য করেন। তাহলে আমার অনেক ভালো হবে। কারণ এত বড় একটা পরিকল্পনা আমার একার দ্বারা সম্ভব নয়। এ কাজে সবাই যদি এগিয়ে আসে তাহলে কাজটা অনেক সুন্দর এবং সফলভাবে কার্যক্রম চলবে। এবং তথ্য অনুযায়ী আমরা আরো জানতে পারি তার নিজস্ব একটা ফেসবুক একাউন্ট থেকে তিনি লাইভ করেছিলেন এবং অনেক মূল্যবান মূল্যবান কথা বলেছিলেন। এবং অনেক মানুষ তাকে সাহায্য করেছে। 50 টাকা থেকে 1000 টাকা পর্যন্ত মানুষ। সামর্থ্যবান মানুষ তাকে সাহায্য করেছেন। তার ফেসবুকের তথ্য অনুযায়ী তিনি যা লিখেছিলেন সেটা আপনাদের সাথে তুলে ধরা হলো, “জনাব” আমার মানবিক উদ্যোগটির সাথে সামান্য হলো আর্থিক সহায়তা প্রদানের মাধ্যমে আপনি অংশগ্রহণ করতে পারেন।01719816987 bksh আমার এই মেসেজটি শুধু পজিটিভ চিন্তার মানুষের জন্য। অবশ্যই আপনার আশেপাশে একেবারে হতদরিদ্র কোন রোগী থাকলে প্রাথমিক চিকিৎসার জন্য এবং ফ্রি ওষুধের জন্য পাঠিয়ে দিবেন আমার কাছে।

এটা প্রমাণ করতে গিয়ে আমরা একটা অসহায় দরিদ্র রোগীকে তার কাছে পাঠায়। এবং আমাদের পরীক্ষায় সফল হন ডাক্তার মনির। সে ওই রোগীকে ফ্রী ট্রিটমেন্ট এবং ফ্রী ওষুধ দিয়েছেন। এবং সে আরো বলেছেন আপনার আশেপাশের গরীব অসহায় দরিদ্র রোগীকে আমার কাছে পাঠাবেন। আমি যথাযথভাবে তার ট্রিটমেন্ট করবো। এ বিষয়ে ডাক্তার মনির দেশবাসীর কাছে দোয়া ও সাহায্য চেয়েছেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

themesbazar1254120z

এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।

অত্র পত্রিকায় প্রকাশিত কোন সংবাদ কোন ব্যক্তি বা কোন প্রতিষ্ঠানের মানহানিকর হলে কর্তৃপক্ষ দায়ী নহে। সকল লেখার স্বত্ব ও দায় লেখকের।

Founder Md. Sakil