শুক্রবার, ২৫ জুন ২০২১, ০৯:০২ পূর্বাহ্ন

কমলনগরে খালের পেটে ব্রীজ :  যোগাযোগ বিচ্ছিন্নতায় ২০ হাজার মানুষ

  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৫.৩৯ পিএম
  • ২২০ বার পঠিত

এম.শাহরিয়ার কামাল,কমলনগর থেকে: লক্ষ্মীপুরের কমলনগর উপজেলার চর লরেন্স ইউনিয়নের কাদিরপন্ডিতের হাট উচ্চ বিদ্যালয় সংলগ্ন ডাকাতের ব্রীজটি প্রবল জোয়ারের শ্রোতে ভেঙে তলিয়ে গেছে। এমন পরিস্থিতিতে উপজেলার লরেন্স বাজার,করইতলা বাজার,চৌধুরী বাজার, ভক্তপাড়া বাজার, নবীগঞ্জ বাজার ও আশপাশ এলাকার প্রায় ২০(বিশ)হাজার মানুষের যোগাযোগ ব্যবস্থা অচল হয়ে পড়েছে। এছাড়াও ব্রীজ সংলগ্ন গড়ে ওঠা ৮টি দোকান ভাঙনাতঙ্কে অন্যত্র সরিয়ে নিতে হচ্ছে। ব্রীজটি ভেঙে পড়ায় তৎসংলগ্ন কটরিয়া মাছ ঘাটের বেচা-বিক্রিও বন্ধ হয়ে গেছে। সরেজমিন ঘুরে জানা যায়, ২০১৬ সালে মেঘনার ভাঙনের মুখে পড়ে কাদিরপন্ডিতের হাট উচ্চবিদ্যালয়টি প্রায় দুই কিলোমিটার পূর্বে ডাকাতের ব্রীজ নামক এলাকায় স্থানান্তরিত হয়। বিদ্যালয়টিকে ঘিরে ত্রিশটির অধিক বহুজাতিক ব্যবসায়ীক দোকান গড়ে উঠে। গেল কয়েক দিনের অস্বাভাবিক জোয়ারের পানির তীব্র শ্রোতে ব্রীজটি ভেঙে খালের পেটে তলিয়ে যাওয়ায় জনদুর্ভোগের সৃষ্টি হয়ে। ভেঙে তলিয়ে যাওয়া ব্রীজ থেকে এক কি:মি: পশ্চিমে গড়ে ওঠা নবীগঞ্জ বাজারের শতাধিক দোকানীর কেনা-বেচা না থাকায় ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ হওয়ার পথে বলে জানিয়েছেন ওই বাজারের কাপড়ের ব্যবসায়ী সালমান এম মনির।

এছাড়া নবীগঞ্জ বাজার জামে মসজিদে নামাজ পড়তে আশা মুসল্লি কমেছে বলেও জানা গেছে। স্থানীয় পোল্টি খামারী ওসমান গণি জানান, ব্রীজটি ভেঙে যাওয়ায় পোল্টি মুরগীর বাচ্চা সরবরাহের গাড়ি খামার পর্যন্ত পৌছতে না পারায় আমার খামার বন্ধ হওয়ার পথে। পাশাপাশি জনদূর্ভোগ লাগবে অতি শীঘ্রই ব্রীজটি নির্মাণ করে দেয়ার দাবী স্থানীয়দের। লরেন্স ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা যুব লীগের সাধারণ সম্পাদক এ এইচ এম আহসান উল্লাহ হিরন জানান,ব্রীজটি ভেঙে পরায় পুরো এলাকার মানুষের যোগাযোগ ব্যাবস্থা অচল হয়ে গেছে। আপদকালীন বরাদ্দের আওতায় এনে ব্রীজটি পূর্ণ-নির্মাণে সহসাই উদ্দোগ নেয়া হবে বলে জানান তিনি।

এ ব্যাপারে কমলনগর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মেজবাহ উদ্দিন আহমেদ বাপ্পী জানান, কাদিরপণ্ডিতের হাট উচ্চবিদ্যালয় ও স্থানীয় লোকদের দূর্ভোগ ঠেকাতে ব্রীজটি নির্মাণের জন্য ঊধ্বর্তন কর্তৃপক্ষের কাছে প্রস্তাবনা পাঠানো হয়েছে। অনুমোদন পেলে সেখানে বাঁধ নির্মাণের উদ্যোগ নেয়া হবে।

 

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

themesbazar1254120z

এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।

অত্র পত্রিকায় প্রকাশিত কোন সংবাদ কোন ব্যক্তি বা কোন প্রতিষ্ঠানের মানহানিকর হলে কর্তৃপক্ষ দায়ী নহে। সকল লেখার স্বত্ব ও দায় লেখকের।

Founder Md. Sakil