বৃহস্পতিবার, ০৫ অগাস্ট ২০২১, ০৫:৪৬ পূর্বাহ্ন

করোনা ভাইরাস “কাহারও পৌষ মাস,কাহারও সর্বনাস- রুপান্তরবিডি

  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ২৩ এপ্রিল, ২০২০, ৯.৫৭ পিএম
  • ১৩৮ বার পঠিত

লোকমান হোসেন, রামগঞ্জ উপজেলা প্রতিনিধিঃ
সারাবিশ্বে যখন করোনা ভাইরাস মহামারি আকার ধারণ করেছে, চিকিৎসা বিজ্ঞানও একধরনের ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছে, মারা গিয়েছে হাজার হাজার মানুষ, ঠিক তখনই সুরক্ষা ও ব্যক্তিগত নিরাপত্তার জন্য লকডাউন ঘোষনা করা হয়েছে পর্যাক্রমে বিশ্বের নানান দেশে। বিগত কয়েকদিন আগে আমাদের দেশেও লকডাউন ঘোষনা করা হয়েছিল। মাঠ পর্যায়ে প্রশাসন তৎপর ছিলো মানুষকে ঘরে রাখতে। একদম বিনা প্রয়োজনে যেনো কেউ ঘর থেকে বের না হয়। বন্ধ হয়ে গেলো অনেক প্রতিষ্ঠান। থেমে গেলো মানুষের দৈনদিন রুটি রোজগারের ব্যবস্থা।
কিন্তু এইভাবে কতদিন চলবে, কি হইতে যাচ্ছে, ঘরে খাবার না থাকলে কি হইবে। এগুলো চিন্তা করিতে করিতে মানুষ যখন হিমশিম খাচ্ছে, তখনই অতিরিক্ত মুনাফার লোভে একশ্রেনীর ব্যবসায়ীর পোয়াবারো। কিছু লোক টাকার বিনিময়ে ঘরে অতিরিক্ত খাবার মজুদ করার পাশাপাশি ব্যবসায়ীরাও নানান অজুহাতে নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের মূল্য বৃদ্ধি করে দিতে থাকে। বাজার মনিটরিং একেবারেই ভেঙ্গে পড়েছে। জিনিসপত্রের দাম চলে যায় সাধারণ জনগনের ক্রয় ক্ষমতার বাহিরে।

লকডাউনের ফলে হতদরিদ্র, দিনমজুর,যাহারা দিনে আনে দিনে খায় তাদের জন্য ত্রাণ সামগ্রি নিয়ে বিভিন্ন সামাজিক সংস্থা ও রাজনৈতিক দল এগিয়ে আসলেও বেশীর ভাগ ক্ষেত্রে অনেকেই বার বার পেলেও কেউ একবারও পায়নি। মধ্যবিত্ত পরিবারের নিরব কাঁন্না আজও কেউ অনুভব করিতে পারেনাই।
মূলত মুদি মালামালের ব্যবসায়ীদের জন্য করোনা ভাইরাস সুফল বয়ে আনলেও গরীব, অসহায় মানুষের কষ্টের যেনো শেষ নাই।
অবস্থা দৃষ্টে মনে হচ্ছে করোনা ভাইরাসের কারণে যেনো কাহারও পৌষ মাস,কাহারও সর্বনাস।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

themesbazar1254120z

এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।

অত্র পত্রিকায় প্রকাশিত কোন সংবাদ কোন ব্যক্তি বা কোন প্রতিষ্ঠানের মানহানিকর হলে কর্তৃপক্ষ দায়ী নহে। সকল লেখার স্বত্ব ও দায় লেখকের।

Founder Md. Sakil