বুধবার, ২৩ জুন ২০২১, ০৪:৪০ পূর্বাহ্ন

‘করোনা মোকাবেলায় দেশে যুক্ত হচ্ছে আরো ৪০০ নতুন আইসিইউ বেড’

  • আপডেট টাইম : শনিবার, ২১ মার্চ, ২০২০, ৪.৩৮ পিএম
  • ১৬৬ বার পঠিত

স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন, ‘করোনাভাইরাস মোকাবেলায় দেশে নতুন ১০০ আইসিইউ বেড স্থাপনের কাজ চলমান রয়েছে। পাশাপাশি আরো ৩০০ আইসিইউ সরঞ্জামাদিও আনার প্রক্রিয়া চলমান। দেশের সরকারি হাসপাতালগুলোতে আগের ছিল ২০০ বেডের মতো আইসিইউ বেড। এগুলো যুক্ত করতে পারলে ৬০০ এরও বেশি থাকবে আইসিইউ বেড।’

শনিবার (২১ মার্চ) বিকালে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সম্মেলন কক্ষে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর কর্তৃক আয়োজিত ‘করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে আন্ত মন্ত্রণালয় বৈঠক’ শেষে সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক এমপি।

এ বিষয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ‘ইটালির মতো উন্নত দেশে সাড়ে ছয়শ’ আইসিইউ বেড আছে। আমাদের দেশে সম্পদের অনেক সীমাবদ্ধতা আছে। এরপরও সময় মতো ৬০০ আইসিইউ বেড স্থাপন করা গেলে এগুলো দিয়েই অনেক মানুষ উপকৃত হবেন।

সম্মেলনে মন্ত্রী চায়নার উহান প্রদেশে করোনা মোকাবেলায় অভিজ্ঞ ডাক্তার-নার্সদের দেশে এনে দেশীয় চিকিৎসকদের প্রশিক্ষণ দেবার ব্যাপারে গুরুত্ব দেন। চীনের সংকটের সময় বাংলাদেশ যেভাবে চীন সরকারকে সহায়তা করেছিল, চীন সরকারও বাংলাদেশের খারাপ সময়ে পাশে থাকবে বলে মন্ত্রী জানান।

করোনায় দেশের সর্বশেষ পরিস্থিতি তুলে ধরে স্বাস্থ্যমন্ত্রী আরো জানান, দেশে আগের ২০ জন করোনা রোগীর সাথে আজ আরো ৪ জন নতুন করোনা রোগী যুক্ত হয়েছে এবং প্রায় ৭৪ বছর বয়স্ক একজন ব্যক্তি আজ করোনায় মারা গেছেন। সারাদেশে প্রায় ১৪ হাজার মানুষ হোম কোয়ারেন্টাইনে আছেন এবং আনুষ্ঠানিক কোয়ারাইন্টাইনে ৫০ জনের মতো ব্যক্তি বর্তমানে চিকিৎসাধীন রয়েছে বলেও মন্ত্রী সভায় অবগত করেন।

স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের সচিব আসাদুল ইসলাম, বিএমএ সভাপতি মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক প্রফেসর আবুল কালাম আজাদসহ মন্ত্রণালয়, সেনাবাহিনী ও অধিদপ্তরের অন্যান্য উর্দ্ধতন কর্মকর্তাগণ এসময় স্বাস্থ্যমন্ত্রীর সাথে উপস্থিত ছিলেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

themesbazar1254120z

এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।

অত্র পত্রিকায় প্রকাশিত কোন সংবাদ কোন ব্যক্তি বা কোন প্রতিষ্ঠানের মানহানিকর হলে কর্তৃপক্ষ দায়ী নহে। সকল লেখার স্বত্ব ও দায় লেখকের।

Founder Md. Sakil