শুক্রবার, ২৫ জুন ২০২১, ০৪:১০ অপরাহ্ন

কুলিয়ারচরে কোরআন শরীফ অবমাননার জেরধরে ফের দু’পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ ! আহত ১৬

  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ৩১ মার্চ, ২০২০, ৬.১৯ পিএম
  • ৭১ বার পঠিত

মোঃ মিজানুর রহমান পাটোয়ারী, কিশোরগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি : কিশোরগঞ্জের কুলিয়ারচরে কোরআন শরীফ অবমাননার জেরধরে দু’পক্ষের মধ্যে ফের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে।

উপজেলার ছয়সূতী ইউনিয়নের হাঁপানিয়া গ্রামের শফিক শাহ্’র মাজার আস্তানায় পবিত্র কোরআন শরীফ অবমাননাকে কেন্দ্র করে সোমবার (৩০মার্চ) সকাল ৮টার দিকে ছয়সূতী ইউনিয়নের মাটিকাটা চকবাজারে ফের দু’পক্ষের মধ্যে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় উভয় পক্ষের মধ্যে কমপক্ষে ১৬ জন আহত হয়েছে বলে জানা যায়। খবর পেয়ে কুলিয়ারচর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে।

জানা যায়, শফিক শাহ্ পীরের আস্তানা ভাংচূড়ের সাথে জড়িত থাকার অভিযোগ এনে মাটিকাটা গ্রামের বজলুর রহমানের বাড়ির পাঞ্জেগানা মসজিদের ঈমাম মোঃ সুলতান মিয়ার পিছনে ওই মসজিদের ক্যাশিয়ার বাবু মিয়া নামাজ পড়তে অস্বীকার করে এবং সুলতান মিয়াকে মসজিদের ঈমামের পদ থেকে অপসারনের দাবি জানান । এতে ওই মসজিদের মুসল্লী ও ওই মসজিদের ঈমামের আত্মীয় মৃত আব্দুর রউফ এর পুত্র বোরহানের সাথে বাবু নামে একজনের বিরোধের সৃষ্টি হয়।

পরে এ ঘটনা বাবু মিয়া স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা আনোয়ার হোসেন বাবুল মিয়াকে জানালে এ নিয়ে উত্তেজনার সৃষ্টি হয়।

ঘটনা প্রসঙ্গে মাটিকাটা চকবাজার ব্যবসায়ী পরিচালনা কমিটির সভাপতি সুরুজ মিয়া সাংবাদিকদের বলেন, আমরা বিষয়টি মীমাংসা করার জন্য কয়েকজন সকালে বাজারে বসে আলোচনা করছিলাম এমন সময় আনোয়ার হোসেন বাবুলকে বোরহানের লোকজন গালি গালাজ করেছে এমন অভিযোগে আনোয়ার হোসেন বাবুলের নেতৃত্বে তার লোকজন বাজারে এসে বোরহানের বংশের লোকজনের উপর হামলা করে এবং ৩ টি দোকান ভাংচূড় ও লুটপাট করে। এ সময় আমি আটকাতে গিয়ে নিজে আহত হই।

এ ছাড়াও হামলার ঘটনায় নান্নু (৩০), বোরহান (৫৫), রেনু মিয়া (৪০), আমান উল্লাহ (৩০), হীরা মিয়া (২৫), মানিক (২২) ও শামীম (৩০) আহত হয়।

অপরদিকে হাপানিয়া গ্রামের আনোয়ার হোসেন বাবুলের পক্ষের লোকজনের মধ্যে সে নিজে ও তার পুত্র বিপ্লব (১৫) সহ জুনায়েদ (৩২), এমাদ (৪০), রাজিব (২২), বিপুল (১৫), সম্রাট (৩০) ও মাসুদ (৩৫) আহত হয়। স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে বিভিন্ন হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করে।

এ রিপোর্ট লিখা পর্যন্ত হামলার ঘটনায় উভয় পক্ষের মধ্যে পাল্টা পাল্টি মামলার প্রস্তুতি চলছিল।

ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে কুলিয়ারচর থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুল হাই তালুকদার সাংবাদিকদের বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে।অভিযোগের ভিত্তিতে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

উল্লেখ্য, এর আগে গত ৯ মার্চ দিবাগত রাতে শফিক শাহ্ এর আস্তানায় এক বাউল গানের আসরে হাঁপানিয়া গ্রামের মৃত সোনা মিয়ার ছেলে সবুজ পাগলা কোরআন শরীফ অবমাননা করে। এ ঘটনার জের ধরে পরদিন সকাল ৭ টার দিকে মাজার বিরোধী কিছু লোক ঐ আস্তানা ভাংচূড় ও অগ্নিসংযোগ করে এবং সবুজ পাগলা সহ আস্তানার ভক্ত কয়েকজনের বাড়ি ভাংচূড় ও অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটায়।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

themesbazar1254120z

এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।

অত্র পত্রিকায় প্রকাশিত কোন সংবাদ কোন ব্যক্তি বা কোন প্রতিষ্ঠানের মানহানিকর হলে কর্তৃপক্ষ দায়ী নহে। সকল লেখার স্বত্ব ও দায় লেখকের।

Founder Md. Sakil