বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০১:৪১ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
মৌলভীবাজার র‌্যাবের হাতে গ্রেপ্তার ৫৮৬ পিস ইয়াবাসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক শ্রীমঙ্গল থেকে গরু চোর আটক: ৪ গরু উদ্ধার কুলাউড়ায় ১৭৮৫ পিস ইয়াবাসহ, র‍্যাবের হাতে আটক (১) জন ভৈরবে গাঁজাসহ ২ মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে র‌্যাব-১৪ অধ্যক্ষ নজরুল ইসলাম(এমপি) চিরদিন বেঁচে থাকবে জনসাধারনের মাঝে-চরফ্যাশন বিএমএসএফ এক প্রবাসীর কাছ থেকে ৩ লক্ষ্য টাকা নিয়ে উধাও সিলেটের শাহজাহান প্রতারক গরিব অসহায় মানুষ আমার বন্ধু  চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী ওয়াছির উদ্দিন আহমেদ (কাওছার) ভৈরবে অন্তসত্বা কল্পনা নামে (বুদ্ধি প্রতিবন্ধি) কিশোরীর রহস্য জনক মৃত্যু জুড়ীতে বঙ্গবন্ধু সাফারি পার্ক স্থাপনে প্রতিবন্ধতা সৃষ্টি করতে পারবে না সাফারি পার্ক হবেই হবে পরিবেশমন্ত্রী বড়লেখায় আওয়ামীলীগের নতুন অফিস উদ্ভোধন করলেন পরিবেশ মন্ত্রী শাহাব উদ্দিন

কুলিয়ারচরে মসজিদের টাকা নিয়ে গেল ইউএনও ! প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল

  • আপডেট টাইম : শনিবার, ১১ এপ্রিল, ২০২০, ৫.২৬ এএম
  • ১১২ বার পঠিত

মোঃ মিজানুর রহমান পাটোয়ারী,

কিশোরগঞ্জ জেলা প্রতিনিধিঃ

কিশোরগঞ্জের কুলিয়ারচরে এক জরাজীর্ণ পাঞ্জাখানা মসজিদের উন্নয়নের কালেকশানের টাকা ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে জরিমানা করে নিয়ে যাওয়ার প্রতিবাদে ইউএনও’র বিরুদ্ধে বিক্ষোভ মিছিল করেছে এলাকাবাসী ।

আজ শুক্রবার সকাল সাড়ে ১১ টার দিকে কুলিয়ারচর – দ্বাড়িয়াকান্দি রাস্তায় এ বিক্ষোভ মিছিলটি বের করে এলাকাবাসী ।

জানা যায়, পবিত্র শবেবরাত উপলক্ষে বৃহস্পতিবার ( ৯ এপ্রিল ) সন্ধ্যার পর উপজেলার দ্বাড়িয়াকান্দি মধ্যপাড়া গ্রামে জরাজীর্ণ এক পাঞ্জাখানা মসজিদ মেরামতের জন্য ওই মসজিদের ইমাম মাহফুজ ও মুসল্লী মোঃ সাইফুল ইসলাম মিলে মসজিদের সামনে একটি টেবিল রেখে এলকাবাসীর নিকট থেকে দুই, পাঁচ, দশ, বিশ ও পঞ্চাশ টাকা করে কালেকশন করছিল। এ সময় ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার রুবাইয়াৎ ফেরদৌসী পুলিশ ফোর্স নিয়ে কালেকশানরত থাকা মোঃ সাইফুল ইসলামের নামে কালেকশনকৃত ৫৩৩৬ টাকা ১৮৬০ সালের দন্ডবিধি ২৬৯ ধারায় জরিমানা করে নিয়ে যায় ।

এর পর থেকে বিষয়টি নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তোলপাড় সৃষ্টি হয় ।

প্রথমে “দ্বাড়িয়াকান্দি আলোকিত যুব সংগঠন” নামক একটি আইডি থেকে স্ট্যাটাস দেয় –

সকলের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি…
গতকাল আমাদের দ্বাড়িয়াকান্দিতে শবে বরাত উপলক্ষ্যে ছবিতে দেখতে পাচ্ছেন মসজিদটি উন্নয়নের জন্য মাগরিব পরবর্তী সময়ে টাকা সংগ্রহ চলছিল ।
ঐ সময় কুলিয়ারচরের ইউ.এন.ও উনার নজরে আসে তখন তিনি অনেকটা ধরপাকড় শুরু করে এবং অবশেষে টাকা গুলো জরিমানা হিসেবে নিয়ে যায় ।

উল্লেখ্য গতকাল কালেকশনে সময় মানুষ ছিল ৪-৫ জন ।
কিন্তু আমি যদি পুরো কুলিয়ারচরের ছিত্র তুলে ধরি তাহলে শত শত মানুষ জমায়েতের ছবি গুলো সামনে আসবে ।

আপনাকে কেন মসজিদকে জরিমানা ধরতে হবে..?
এর ছেয়ে হৃদয়বিদারক ঘঠনা আর কি হতে পারে..?
উনি চাইলে বিকল্প কিছু করতে পারতেন কিন্তু এরখমটা আমরা দ্বাড়িয়াকান্দিবাসী কেউ মেনে নিতে পারছি না ।

আমি ফেসবুকের মাধ্যমে এউ.এন.ও নিকট বিনীত অনরোধ করে বলছি যত দ্রুত সম্ভব আপনি টাকা গুলো ফেরৎ দিবেন এবং এরখম একটি জগণ্য কাজের জন্য দুঃখ প্রকাশ করবেন ।

জনগণের জন্যই প্রসাশন
আর প্রসাশন যদি জনগণের আবেগের মূল্য না দেয়
তাহলে জনগণ দেখিয়ে দিবে যে, জনগণ চাইলে কি করতে পারে ।

” নূরুল মনসুর ” নামে এক আইডি থেকে স্ট্যাটাস দিয়েছেন – বাংলাদেশ ইতিহাসে এমন নজির নাই ৯৬ শতাংশ মুসলিম বসবাসরত একটি ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান ” মসজিদ ” কে জরিমানা করা । এটাই প্রথম । জয় হোক ইউএনও মেডামের ।

তিনি আরো একটি স্ট্যাটস দিয়েছেন – মসজিদে লোক সমাগম দেখে, অথচ তার চোখের সামনে কুলিয়ারচর বাজারে প্রতিদিন হাজার হাজার লোকসমাগম হয় সেটা দেখে না । শুধু কুলিয়ারচর বাজার নয় প্রতিটি বাজারে প্রচুর লোকের জমায়েত হয় ।

” রাজহীন রাজ ” নামে অপর একটি ফেইসবুক আইডি থেকে স্ট্যাটাস দিয়েছেন – কাজটা একেবারেই ঠিক করেনি…..এই মসজিদটি অনেক দিন যাবত অসংস্কার এর কারনে বেহাল অবস্থায় পড়ে আছে….. মানুষগুলো টাকা কালেকশন করে আল্লাহর ঘর মেরামত করতে চেয়েছিলেন….তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই ।

এমনই ভাবে অনেক ফেইসবুক আইডি থেকে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের এহেন কার্যকলাপের তীব্র নিন্দা জানান ।

এব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার রুবাইয়াৎ ফেরদৌসী এর মোবাইল ফোনে কল করে তার মোবাইল ফোন বন্ধ থাকায় তার সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করেও যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি ।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

themesbazar1254120z

এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।

অত্র পত্রিকায় প্রকাশিত কোন সংবাদ কোন ব্যক্তি বা কোন প্রতিষ্ঠানের মানহানিকর হলে কর্তৃপক্ষ দায়ী নহে। সকল লেখার স্বত্ব ও দায় লেখকের।

Founder Md. Sakil