বুধবার, ২৩ জুন ২০২১, ০৪:১৮ পূর্বাহ্ন

চরফ্যাশনে কু-প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় মামলা হামলার শিকার অসহায় পরিবার

  • আপডেট টাইম : বুধবার, ২ জুন, ২০২১, ১১.৩০ পিএম
  • ১৩৯ বার পঠিত

জিহাদুল ইসলাম,চরফ্যাশন (ভোলা) প্রতিনিধি:কু-প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় একাধীক মামলা ,হামলা ও নির্যাতনের শিকার চরফ্যাশন উপজেলার একটি অসহায় পরিবার। ভূক্তভোগী নুরাবাদ ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা রাবেয়া আকতার অভিযোগ করে বলেন, প্রতিবেশি ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সম্পাদক নিজাম হাওলাদার দীর্ঘদিন ধরে আমাকে কু-প্রস্তাব দিলে আমি রাজি না হওয়ায় আমাকে ও আমার স্বামীর বিরুদ্ধে একাধীকবার মামলা হামলা করে। তিনি ভিযোগ করে আরও বলেন,চর তোফাজ্জল গ্রামে দীর্ঘ ৬বছর ধরে আমরা বাড়ি করে বসবাস করছি। আমার বাড়িতে বেসরকারী উন্নয়ন সংস্থা দিশারী’র মাধ্যমে একটি উপানুষ্ঠানিক প্রাথমিক বিদ্যালয় স্থাপন করা হলে প্রতিপক্ষ নিজাম হাওলাদার প্রভাব দেখিয়ে স্কুলটি তাঁর বাড়িতে স্থানান্তর করতে চায়। আমরা বাঁধা দেয়ায় নিজাম হাওলাদার স্কুলটি স্থানান্তর করতে না পেরে আমাদের সাথে বিরোধ করে প্রাণী সম্পদের আওতায় আমার একটি টার্কি খামারের ৭০টি টার্কিসহ ৮০টি হাঁস কিটনাশক স্প্রে দিয়ে মেরে ফেলে নিজাম গং। এছাড়াও তাঁর ছেলে আতিক ও আশিক করোনার পূর্বে শিক্ষার্থীদের পড়ানোর সময় স্কুলের ভিতরে ইটপাটকেল মেরে এক ছাত্রের মাথা ফাটিয়ে দেয়। এছাড়াও তাঁর ওই দুই ছেলে আমার অষ্টম শ্রেণী পড়ুয়া মেয়েকে দীর্ঘদিন ধরে রাস্তাঘাটে দেখলেই উত্তক্ত করে। রাবেয়ার স্বামী মোস্তফা বলেন, আমরা ইউপি নির্বাচনে নৌকা মার্কা প্রার্থীর নির্বাচন করায় নিজামদের ইন্দোনে আমার রেশনকার্ডটিও কেরে নিয়ে যায় তাদের স্বতন্ত্র গ্রুপের দলীয় কর্মীরা। নিজাম ক্ষমতার প্রভাব দেখীয়ে আমার পরিবারসহ আমাকে এলাকা ছাড়া করতে বিভিন্ন মামলায় জড়িয়ে দিয়ে আমাদের হয়রানি করছে। এ বিষয়ে নিজাম হাওলাদারকে বাড়িতে না পাওয়ায় তাঁর বক্তব্য নেয়া যায়নি তবে তাঁর ছেলে আতিক ও আশিক অভিযোগ অস্বিকার করে জানান,তাঁদের সাথে দীর্ঘ চারবছর পূর্বে ঝামেলা ছিলো বর্তমানে কোনো বিরোধ নেই।

আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে আজই যোগাযোগ করুন, 👇👇

মোবাইলঃ
+601121343215 (ইমু) (হোয়াটসঅ্যাপ)

ই-মেইলঃ- rupantornewsbd@gmail.com

 

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

themesbazar1254120z

এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।

অত্র পত্রিকায় প্রকাশিত কোন সংবাদ কোন ব্যক্তি বা কোন প্রতিষ্ঠানের মানহানিকর হলে কর্তৃপক্ষ দায়ী নহে। সকল লেখার স্বত্ব ও দায় লেখকের।

Founder Md. Sakil