শনিবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২১, ০২:০৮ অপরাহ্ন
শিরোনাম :

চরফ্যাশনে সাংবাদিকদের মিথ্যা তথ্য দিয়ে ইউপি সদস্য ও আওয়ামীলীগ নেতার বিরুদ্ধে অপপ্রচার

  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ৯ জুন, ২০২০, ১১.০৫ পিএম
  • ২৩৯ বার পঠিত

 

জিহাদুল ইসলাম

ভোলা চরফ্যাশনের শশীভূষন থানার কলের হাট বাজার সংলগ্ন স্থানে “বৃদ্ধ কতৃক ১ম শ্রেণীর ছাত্রী ধর্ষনের চেষ্টা ও মাতুব্বরদের টাকার বিনিময়ে শালিশে রফাদফা”এমন একটি খবর প্রকাশিত হয় সমকালসহ বেশ কিছু অনলাইন পত্রিকায়।যেখানে প্রকাশিত হয়েছিলো রসুলপুর ৪নং ইউপি সদস্য এমদাদুল হক মিঠু ও ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ সভাপতি সোলাইমান জরিমানার নামে রফাদফা করে ২০ হাজার টাকা হাতিয়ে নেয়।

কিন্ত এধরনের নিউজ প্রকাশের পর চাপা ক্ষোভ বিরাজ করছে জনমনে।স্থানীয় অনেকের দাবি, সেখানে আর্থিক লেনদেনের কোনো ঘটনা ঘটেনি।যখন মিটু মেম্বার ও সভাপতি সোলাইমান সেখানে গিয়েছে তখন স্থানীয় অনেকেই উপস্থিত ছিলাম।

স্থানীয়রা জানায়,গত শনিবার যখন শিশু ধর্ষনের চেষ্টা হয়েছে এমন কথা উঠে তখন আমরা জনপ্রতিনিধি হিসেবে মিঠু মেম্বার ও ওয়ার্ড সভাপতি সোলাইমান কে খবর দিয়ে রবিবার বিষয়টি দেখার জন্য নিয়ে যায়।তখন মিঠু মেম্বার আসলে সকলের সামনে মিঠু মেম্বার বৃদ্ধ হারুন রাঢ়ীকে প্রশ্ন করে এ বিষয় নিয়ে তখন হারুন রাঢ়ী বলে এমন কিছু হয়নি তবে বাচ্চা মেয়েটি যেহেতু আমার নাতনীর বয়সী তাই আমি একটু দুষ্টুমি করেছি।কেন দুষ্টুমি করতে গিয়েছেন একথা বলে রেগে যায় তখন ইউপি সদস্য ও ওয়ার্ড সভাপতি সোলাইমান।একপর্যায়ে বৃদ্ধ হারুন রাঢ়ী উপস্থিত সকলের সামনে ক্ষমা চায় একথা বলে যে আমার দুষ্টুমি করা যেহেতু আজ অপরাধ হয়েছে তবে আমি সকলের সামনে ক্ষমা চাচ্ছি আর কখনো কারো সাথে দুষ্টুমিও করবো না।আপনারা আমায় ক্ষমা করে দিন।তখন মিঠু মেম্বার বলে সবাই যদি মাপ করে দেয় তবে আমিও মাপ করে দিয়েছি।এখানেই ঘটনাটির সমাপ্তি ঘটে।তাছাড়া বৃদ্ধ হারুন রাঢ়ীর বিরুদ্ধে বাচ্ছা মেয়েটি ও তার নানী কোনো সুনির্দিষ্ট অভিযোগ করেনি তাই সেখানেই মিলিয়ে সমাধান করে দেওয়া হয়।

ওয়ার্ড সভাপতি সোলাইমান মেম্বার জানায়, এখন পর্যন্ত কোনো সাংবাদিকের সাথে আমার এ বিষয়ে কথা হয়নি তাহলে নিউজে আমার বক্তব্য পেলো কোথায়।আমার সাথে কথা না বলে আমার বক্তব্য বলে আমার মানহানি কেন করা হলো।আমি এর বিচার চাই।সেখানে যা কিছু হয়েছে স্থানীয় সকলের সামনেই হয়েছে তাহলে ২০ হাজার টাকায় রফাদফার কথা কোথা থেকে আসলো।
ইউপি সদস্য মিঠু মেম্বারও সোলাইমান মেম্বার এর কথার সাথে সহমত পোষন করেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

themesbazar1254120z

এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।

অত্র পত্রিকায় প্রকাশিত কোন সংবাদ কোন ব্যক্তি বা কোন প্রতিষ্ঠানের মানহানিকর হলে কর্তৃপক্ষ দায়ী নহে। সকল লেখার স্বত্ব ও দায় লেখকের।

Founder Md. Sakil