শুক্রবার, ১৮ জুন ২০২১, ০৫:২৪ পূর্বাহ্ন

পিরোজপুরে প্রকৌশলীর অপসারণের দাবিতে মানববন্ধন

  • আপডেট টাইম : শুক্রবার, ২৬ জুন, ২০২০, ৪.২৬ পিএম
  • ৩৬১ বার পঠিত
ফারজানা আক্তার (নিপা পিরোজপুর):  পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় উপজেলা প্রকৌশলীর অপসারণের দাবীতে বিক্ষোভ করেছে ঠিকাদাররা। আজ শুক্রবার দুপুরে মঠবাড়িয়া কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার সম্মূখ সড়কে এডিপির ১২ প্যাকেজ‘র প্রায় ৬১ লাখ টাকা টেন্ডারে ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ এনে টেন্ডার বাতিলের দাবিতে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে তারা। এর আগে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবরে লিখিত অভিযোগ দেয়াসহ সংবাদ সম্মেলন করেন। ঘন্টা ব্যপী এ মানববন্ধনে টেন্ডার বাতিলের দাবি ও পুণঃ টেন্ডার দেয়ার আহবান জানিয়ে এবং প্রকৌশলীর অপসারনের দাবি করে বক্তব্য রাখেন, ঠিকাদার ও সাবেক কাউন্সিলন মো. হেমায়েত উদ্দিন, সাবেক কাউন্সিলন মো. জিল্লুর রহমান, খাইরুল ইসলাম কামাল, কামরুল আকন, তৌহিদ মাসুম, নজরুল ইসলাম সোহেল প্রমূখ। বক্তারা বলেন, উপজেলা প্রকৌশলী গত ১৮ জুন নোটিশে সহি করলেও ২১ ও ২২ জুন মাত্র দু‘ঘন্টা করে সিডিউল বিক্রি করেন। প্রতিটি সেটের মূল্য ৭‘শ টাকা বেশী নিয়ে ৫% কমিশন হিসেবে ফরম পূরণ করার পরামর্শ দেন। পরবর্তিতে অফিস কর্তপক্ষ আরএফকিউ নোটিশ দিয়ে উল্লেখ করেন শুধুমাত্র উপজেলাধীন স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের তালিকাভুক্ত ঠিকাদারগণ দরপত্রে অংশগ্রহণ করতে পারবে। যাহা সম্পূর্ণ আইন বিরোধী। আরএফকিউ পদ্ধতিতে শতাধিক ফরম বিক্রিও বে-আইনী। আরএফকিউ পদ্ধতিতে সকল ঠিকাদারদের সম্মূখে দরপত্র খোলার কথা থাকলেও অফিস কর্তৃপক্ষ গেট বন্ধ করে রহস্য জনক কারনে পছন্দমত কতিপয় ঠিকাদারদের বাঁছাই করে ২২% থেকে ২৭% কমিশন দিয়ে পাইয়ে দেন। দরপত্রে ১০ দিনের সময় উল্লেখ থাকলেও কতিপয় ঠিকাদারের স্বার্থ সিদ্ধির জন্য ৩ দিনের মধ্যে তাড়াহুরা করে সমাপ্ত করে। এব্যপারে উপজেলা প্রকৌশলী কাজী আবু সাঈদ মোঃ জসীম এর মুঠো ফোনে একাধিকবার কল করলেও তিনি কল রিসিভড করেনি। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ঊর্মি ভৌমিক বলেন,তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে। 

 

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

themesbazar1254120z

এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।

অত্র পত্রিকায় প্রকাশিত কোন সংবাদ কোন ব্যক্তি বা কোন প্রতিষ্ঠানের মানহানিকর হলে কর্তৃপক্ষ দায়ী নহে। সকল লেখার স্বত্ব ও দায় লেখকের।

Founder Md. Sakil