শনিবার, ৩১ জুলাই ২০২১, ১২:০০ অপরাহ্ন
শিরোনাম :

ফেসবুকে ফেইক আইডি থেকে অপপ্রচারের প্রতিবাদে সোনাগাজীতে প্রাক্তন স্বামীর বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন

  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ২৩ জুন, ২০২০, ৫.৫১ এএম
  • ৭৬ বার পঠিত

ফেনী প্রতিনিধিঃ

সোনাগাজী পৌরসভার ৪নং ওয়ার্ড পান্ডব বাড়ীর আবুল বাশারের ২য় মেয়ে জান্নাতুল নাঈম স্মৃতি ফেনী সদর উপজেলার ধলিয়া ইউনিয়নের বালুয়া চৌমুহনীর আবদুর রশীদ দফাদার বাড়ীর (কপিল মেম্বার বাড়ী) মৃত নুরুল ইসলামর ছোট ছেলে মীর হোমেসন পারভেজ এর সাথে ২০১৬ সালের ১৫ই জুলাই শরীয়াহ মোতাবেক বিয়ে হয়। এবং বিভিন্ন অত্যাচার ও মিথ্যাচারের কারণে ২০১৮ সালে বিবাহ বিচ্ছেদ হয়।

সংবাদ সম্মেলনে স্মৃতি অভিযোগ করেন, মীর হোসেন পারভেজ এবং তার পরিবার তাদের সকল তথ্য গোপন রেখে তাকে বিয়ে করে। এবং বিয়ের পর সে জানতে পারে পারভেজ চট্টগ্রামে পূর্বে একটি বিয়ে করে এবং তাদের সেই সংসারে একটি ৮ বছরের ছেলে সন্তান রয়েছে। পাশাপাশি সে বর্তমানে দক্ষিণ আফ্রিকায় অবস্থান করে এবং সেখানেও একটি বিয়ে করে। এছাড়াও পারভেজ বিয়ের পর তাকে নেশাগ্রস্থ অবস্থায় নানা রকম অত্যাচার করে।

স্মৃতি বলেন, তখন পারভেজ বিদেশে চলে যাওয়ার পর তার মা-বোন এবং ভাবির মাধ্যমে আমাকে নির্যাতন করে। সে আমার কাছে যৌতুক হিসেবে ৮লক্ষ টাকা দাবী করে এবং আমার বাবার এক কোটি টাকার সম্পত্তি তার নামে লিখে দিতে নানা রকম চাপ সৃষ্টি করে। তাদের এক আত্বীয় সোনাগাজীর কাশ্মির বাজারের বিএনপি নেতা ও সাবেক মেম্বার নুর নরী এই সব কিছুতে সহযোগিতা করে। পারভেজ তার মা-বোন, ভাবি ও নুর নবীকে দিয়ে আমার কাছ থেকে সাদা স্টাম্পে জোরপূর্বক স্বাক্ষর নেয়। আমাকে ও আমার বাবাকে হত্যার হুমকী দেয় যা আমার মোবাইল ফোনে রেকর্ড ছিলো। রেকর্ডেও বিষয়ে তারা জানতে পেরে তাদের পরিবারের লোকজন আমার গায়ে হাত তুলে। এবং বিভিন্ন কৌশলে আমার কাছ থেকে ফোন নিয়ে সব রেকর্ড ডিলিট করে দেয়। এই সকল নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে আমি আমার বাবার বাড়ীতে চলে আসি এবং নির্যাতনের প্রতিকার পেতে আমি নারী শিশু ট্রাইব্যুনালে একটি মামলা দায়ের করি।

মামলা করায় আমার স্বামী ক্ষিপ্ত হয়ে আমার ও আমার পরিবারের বিরুদ্ধে বিভিন্ন ফেইক আইডি থেকে মিথ্যা,বানোয়াট ও সম্মানহানীকর অপপ্রচার এবং আমার ও আমার পরিবারের ছবি ফেইজবুকে ছড়িয়ে দেয়।

স্মৃতি আরো বলে, আমার প্রাক্তন স্বামী পারভেজ আমাদের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করতে আমাদের বাড়ীর কিছু লোককে (যাদের সাথে আমাদের দ্ব›দ্ব রয়েছে) ব্যবহার করছে । পারভেজ গত কিছুদিন যাবৎ আমাদের বিরুদ্ধে “পান্ডব বাড়ীর স্মৃতি, জীবনটা আনন্দময়, উর্মি আক্তার, স্মৃতির বাবা বাশার বিরুদ্ধে, জান্নাতুল মীর, স্মৃতি দেবলতি,  জীবনটা তেজপাতা, শিশির ভেজা ভোর (বর্তমান-mir hossain parvez), জেনিফা আক্তার সহ আরো অনেক গুলো আইডি থেকে অপপ্রচার চালিয়ে যাচ্ছে। এই সকল আইডির বিরুদ্ধে আমরা সোনাগাজী মডেল থানায় সাধারন ডায়েরী (৬৭৪/১৭-০৮-২০১৯ইং) ও একটি অভিযোগ দায়ের করি।

গত ৬ ও ১৩ জুন দৈনিক হাজারীকা পত্রিকায় আমাদের বিরুদ্ধে মিথ্যা নিউজ প্রকাশিত হয়। যাতে লিখা ছিলো আমরা পারভেজকে মারার জন্য সন্ত্রাসী ভাড়া করেছি এবং আমার দেন-মোহরের জন্য চাপ সৃষ্টি করছি সহ আরো অভিযোগ করা হয়। আমি এই পত্রিকার সম্পাদক কে এক পক্ষীয় সংবাদ প্রকাশ থেকে বিরত থেকে সঠিক সংবাদ প্রকাশ করার জন্য অনুরোধ জানাচ্ছি। এবং প্রকাশিত সংবাদের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

পরিশেষে আমি আমাদের জীবনের নিরাপত্তা ও চলামান ফেইক আইডির বিরুদ্ধে প্রশাসনিক ব্যাবস্থা নেওয়ার জন্য আপনাদের মাধ্যমে অনুরোধ করছি।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

themesbazar1254120z

এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।

অত্র পত্রিকায় প্রকাশিত কোন সংবাদ কোন ব্যক্তি বা কোন প্রতিষ্ঠানের মানহানিকর হলে কর্তৃপক্ষ দায়ী নহে। সকল লেখার স্বত্ব ও দায় লেখকের।

Founder Md. Sakil