মঙ্গলবার, ২২ জুন ২০২১, ০৯:৩৯ পূর্বাহ্ন

বামনডাঙ্গা ইউপিতে আলহাজ্ব মইনুল ইসলাম লালের খাদ্য সামগ্রী বিতরণ অব্যাহত

  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ৩০ এপ্রিল, ২০২০, ৫.২২ পিএম
  • ৩৩ বার পঠিত

এজি লাভলু, কুড়িগ্রাম: দুধকুমর নদের ভাঙনে সর্বস্ব হারা চরাঞ্চলের কর্মহীন ও হতদরিদ্র পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী অব্যাহত বিতরণ করছেন নাগেশ্বরী আওয়ামী লীগের নেতা আলহাজ্ব মইনুল ইসলাম লাল।

জানা গেছে, কুড়িগ্রাম জেলার নাগেশ্বরী উপজেলার বামনডাঙ্গা ইউনিয়ন অভিশপ্ত দুধকুমর নদের ভাঙনে গত দু’বছর পূর্বে ইউনিয়নের ৯টির মধ্যে ৭টি ওয়ার্ডসহ আনছারহাট, মুড়িয়াহাট বাজারসহ ৬টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান দুধকুমর নদে বিলীন হয়ে যায়।

চর বামনডাঙ্গা, কুটিরচর, চরলুছনী, লুছনী, চরমুড়িয়া, চরকুটি বামনডাঙ্গা, মিয়াপাড়া, পানাতিটারী, সর্দারেরভিটা, গালাদিঘলী, তেলিয়ানীরপাড়, আনছারহাট, নামাইল্যা চরাঞ্চলের প্রায় ৩০ হাজার হতদরিদ্র ও দিন মুজুর মানুষ জীবিকার তাগিদে শ্রম ফেরী করার উপার্জিত অর্থ দিয়ে পরিবার পরিজন নিয়ে অতিকষ্টে দিন যাপন করাসহ সন্তানের লেখাপড়া ব্যয়ভার বহন করেন। কিন্তু করোনার প্রভাবে লকডাউন এতে কর্মহীন হয়ে পড়েছে শ্রমজিবী, দিন মুজুর মানুষ। কাজ না থাকায় সংসার চালাতে হিমশিম খাচ্ছেন এবং অনেকের ঘরে খাবার না থাকায় মানবেতর জীবন যাপন করছেন স্ত্রী সন্তানদের নিয়ে।

এমতাবস্থায় বামনডাঙ্গা ইউনিয়নের কৃতি সন্তান দেশবন্ধু গ্রুপের চেয়ারম্যান শিল্পপতি গোলাম মোস্তফার ছোট ভাই নাগেশ্বরী উপজেলা আওয়ামী লীগের অন্যতম সদস্য এবং বামনডাঙ্গা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আলহাজ্ব মইনুল ইসলাম লাল তার নিজস্ব অর্থায়নে চরাঞ্চল বামনডাঙ্গা ইউনিয়নের ৯টি ওয়ার্ডের হতদরিদ্র ও দিন মুজুর এবং রিস্কা, ভ্যান চালক পরিবারের মাঝে অব্যাহতভাবে চাল, আলু, লবণ, ডাল বিতরণ করে আসছেন।

নাগেশ্বরী উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য আলহাজ্ব মইনুল ইসলাম লাল জানান, আমার নিজস্ব অর্থায়নে হতদরিদ্র পরিবারের মাঝে ত্রাণ বিতরণ অব্যাহত থাকবে। এই দুঃসময়ে হতদরিদ্রদের পাশে দাঁড়ানোর জন্য সমাজের বিত্তবান সবাইকে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেয়ার আহ্বান জানান। সরকার ঘোষিত লকডাউনে সবাইকে ঘরে থাকতে হবে। করোনা থেকে মুক্তি পেতে এর বিকল্প নেই।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

themesbazar1254120z

এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।

অত্র পত্রিকায় প্রকাশিত কোন সংবাদ কোন ব্যক্তি বা কোন প্রতিষ্ঠানের মানহানিকর হলে কর্তৃপক্ষ দায়ী নহে। সকল লেখার স্বত্ব ও দায় লেখকের।

Founder Md. Sakil