রবিবার, ০১ অগাস্ট ২০২১, ১০:৩৭ পূর্বাহ্ন

বড়লেখায় অসহায় সুবিধা বঞ্চিত পরিবারের মাঝে নিসচা’র বৈদ্যুতিক পাখা বিতরণের ৩য় দিনের কর্মসূচি সম্পূর্ণ

  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ৩০ জুন, ২০২০, ৭.৫৬ পিএম
  • ২০৪ বার পঠিত

মৌলভীবাজার জেলা প্রতিনিধিঃ

মৌলভীবাজারের বড়লেখা উপজেলায় নিরাপদ সড়ক চাই (নিসচা) বড়লেখা উপজেলা শাখার ব্যবস্থাপনায় ও যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী নিসচা বড়লেখা’র উপদেষ্টা কমিনিটি নেতা আলহাজ্ব মুক্তাদির হোসেন মিসবাহ এবং সমাজসেবক ও প্রবাসী কমিটির নেতা তোফায়েল আহমদের অর্থায়নে বৈদ্যুতিক পাখা বিতরণের ৩য় ধাপে কর্মসূচির সম্পূর্ণ করা হয়েছে।

“হারুক গরম জিতুক মানবতা ফোটুক হাসি গরমার্ত মানুষের মুখে” স্লোগান কে সামনে রেখে মঙ্গলবার (৩০ জুন) বৈদ্যুতিক পাখা বিতরণ কর্মসূচির ৩য় ধাপ সম্পূর্ণ করা হয়। বড়লেখা সদর ইউনিয়নের কেছরিগুল গ্রামের ৭নং ওয়ার্ডে ১টি পরিবার’কে বৈদ্যুতিক পাখা প্রদান করা হয়।
বৈদ্যুতিক পাখা বিতরণ কালে উপস্থিত ছিলেন নিরাপদ সড়ক চাই (নিসচা) বড়লেখা উপজেলা শাখার আহ্বায়ক তাহমীদ ইশাদ রিপন, যুগ্ম আহবায়ক আব্দুর রহমান, মার্জানুল ইসলাম মার্জান, সদস্য সচিব আইনুল ইসলাম, কার্যকরী কমিটির সদস্য সিরাজুল ইসলাম শিরুল, নূর আলম মহন ও বড়লেখা মানবসেবা সংস্থার সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মেদ জাহাঙ্গীর আলম শুভ সহ প্রমূখ।

নিরাপদ সড়ক চাই বড়লেখা উপজেলা শাখার উপদেষ্টা যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী কমিটির নেতা আলহাজ্ব মুক্তাদির হোসেন মিসবাহ এবং সমাজসেবক ও প্রবাসী কমিটির নেতা তোফায়েল আহমদ জানান, অতিমাত্রার শীত যেমন অসহায় মানুষকে কষ্ট দেন তেমনি অতিমাত্রার গরমও মানুষকে পীড়া দেয়। কিন্তু সমাজের বিত্তবান, সামাজিক সহ বিভিন্ন শ্রেণির মানুষ শীতার্ত মানুষের পাশে দাঁড়ায়। কিন্তু গরমের সময় কেউ গরমার্ত মানুষের পাশে দাঁড়ায় না। যেজন্য সমাজের অসহায় সুবিধা বঞ্চিত মানুষের কথা চিন্ত করে ব্যতিক্রমী উদ্যোগ গ্রহণ করেছি। উনারা আরও বলেন, অসহায় মানুষের মাঝে বৈদ্যুতিক পাখা বিতরণ কর্মসূচি অব্যাহত থাকবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

themesbazar1254120z

এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।

অত্র পত্রিকায় প্রকাশিত কোন সংবাদ কোন ব্যক্তি বা কোন প্রতিষ্ঠানের মানহানিকর হলে কর্তৃপক্ষ দায়ী নহে। সকল লেখার স্বত্ব ও দায় লেখকের।

Founder Md. Sakil