শুক্রবার, ১৮ জুন ২০২১, ০৫:৫৯ পূর্বাহ্ন

ভূমি অধিগ্রহনে অনিয়ম: মহেশখালীর ইউপি চেয়ারম্যানসহ ১৯ ব্যক্তিকে দুদকে তলব

  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ১২ নভেম্বর, ২০২০, ৮.২০ পিএম
  • ৯১ বার পঠিত

দেলোয়ার হোছাইনঃ মহেশখালী কক্সবাজার
প্রতিনিধি
কক্সবাজার জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের ভূমি অধিগ্রণ (এলএ) শাখায় বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্পের জন্য জমি অধিগ্রহণে দূর্নীতিতে জড়িত থাকার অভিযোগে ১৯ জনকে তলব করেছে দূর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। কক্সবাজার পৌরসভার সচিব রাসেল চৌধুরী, মহেশখালী উপজেলার কালারমারছড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান তারেক বিন ওসমান শরীফ, সাবেক ভূমি অধিগ্রহণ কর্মকর্তা (এলএ) রেজাউল করিমসহ আগামী ১৫ থেকে ২২ নভেম্বরের মধ্যে নির্ধারিত বিভিন্ন সময়ে দূর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) সমন্বিত জেলা কার্যালয়, চট্রগ্রাম-২ এ স্বশরীরে হাজির হওয়ার জন্য নোটিশও দেয়া হয়েছে।

নোটিশে বলা হয়েছে, হাজিরের সময় স্ব স্ব ব্যক্তি ও তাদের স্ত্রীর জাতীয় পরিচয়পত্র, পাসপোর্টের ফটোকপি ও মুল কপি, তাদের এবং তাদের উপর নির্ভশীল ব্যক্তিদের নামে থাকা সকল ব্যাংক হিসাবের বিবরণী সাথে নিয়ে আনতে হবে। এছাড়াও তাদের আয়কর নথি ১০-বিসহ সর্বশেষ করবর্ষের কপি নিতে বলা হয়েছে।

নোটিশ প্রাপ্তরা হলেন, কক্সবাজার জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের ভূমি অধিগ্রণ শাখার সাবেক ভূমি অধিগ্রহণ কর্মকর্তা (এলএও) রেজাউল করিম, অতিরিক্ত ভূমি অধিগ্রহণ কর্মকর্তা (এএলএও) মোশাররফ হোসেন, বিজয় কুমার সিংহ, কানুনগো আব্দুল খালেক, আব্দুর রহমান, বসন্ত কুমার চাকমা, সার্ভেয়ার রাসেল মাহমুদ মজুমদার, কবির আহমেদ, ক্যাশব লাল দে, পরিমল চন্দ্র দাশ, সাইফুল ইসলাম পাটোয়ারী, মিশুক চাকমা, আতাউল হক, পিকলু দাশ, তহশীলদার জয়নাল, কক্সবাজার জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের অফিস সহকারী এহসান কুতুবী ও আবুল হাশেম, কালারমারছড়া ইউপি চেয়ারম্যান তারেক বিন ওসমান শরীফ ও কক্সবাজার পৌরসভার সচিব রাসেল চৌধুরী।

আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে আজই যোগাযোগ করুন, 👇👇

মোবাইলঃ
+601121343215 (ইমু) (হোয়াটসঅ্যাপ)

মোবাইলঃ 01707177591 (ইমু) (হোয়াটসঅ্যাপ)

ই-মেইলঃ- rupantornewsbd@gmail.com

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

themesbazar1254120z

এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।

অত্র পত্রিকায় প্রকাশিত কোন সংবাদ কোন ব্যক্তি বা কোন প্রতিষ্ঠানের মানহানিকর হলে কর্তৃপক্ষ দায়ী নহে। সকল লেখার স্বত্ব ও দায় লেখকের।

Founder Md. Sakil