শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০২:২৬ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
কুলাউড়ায় ১৭৮৫ পিস ইয়াবাসহ, র‍্যাবের হাতে আটক (১) জন ভৈরবে গাঁজাসহ ২ মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে র‌্যাব-১৪ অধ্যক্ষ নজরুল ইসলাম(এমপি) চিরদিন বেঁচে থাকবে জনসাধারনের মাঝে-চরফ্যাশন বিএমএসএফ এক প্রবাসীর কাছ থেকে ৩ লক্ষ্য টাকা নিয়ে উধাও সিলেটের শাহজাহান প্রতারক গরিব অসহায় মানুষ আমার বন্ধু  চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী ওয়াছির উদ্দিন আহমেদ (কাওছার) ভৈরবে অন্তসত্বা কল্পনা নামে (বুদ্ধি প্রতিবন্ধি) কিশোরীর রহস্য জনক মৃত্যু জুড়ীতে বঙ্গবন্ধু সাফারি পার্ক স্থাপনে প্রতিবন্ধতা সৃষ্টি করতে পারবে না সাফারি পার্ক হবেই হবে পরিবেশমন্ত্রী বড়লেখায় আওয়ামীলীগের নতুন অফিস উদ্ভোধন করলেন পরিবেশ মন্ত্রী শাহাব উদ্দিন মাওলানা আইয়ুব আলী ছিলেন এক বাতিঘর  জুড়ীত তিনটি গরু ও ১ পিকআপ গাড়ি উদ্ধার দুইজন কুখ্যাত চুরি আটক

মন্দির ভাঙার অভিযোগ, ইউপি চেয়ারম্যান গ্রেফতার

  • আপডেট টাইম : রবিবার, ২৮ জুন, ২০২০, ১০.১৮ পিএম
  • ১৪৩ বার পঠিত

মোঃ আরিফ শেখ, রংপুর প্রতিনিধিঃ 

মন্দির ভাঙার অভিযোগে রংপুরের গঙ্গাচড়ায় এক ইউপি চেয়ারম্যানকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। শনিবার রাতে আলমবিদিতর ইউনিয়নের বাড়াইপাড়া মন্দির ভাঙার অভিযোগে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। বর্তমানে তিনি পুলিশ হেফাজতে গঙ্গাচড়া থানা হাজতে রয়েছেন।

থানা পুলিশ সূত্র জানিয়েছে, ওই ইউনিয়নের দক্ষিণ বাড়াইপাড়া কালিমন্দিরের সংস্কার কাজ চলছিল। শনিবার বিকেলে আলমবিদিতর ইউপি চেয়ারম্যান আফতাবুজ্জামান ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে মন্দিরের সংস্কার কাজ বন্ধ রাখার নির্দেশ দেন। এতে মন্দির কমিটির লোকজন অসম্মতি জানালে তিনি ক্ষিপ্ত হয়ে লাথি মেরে নির্মানাধীন কাজের অনেকাংশ ভেঙে ফেলেন। এ ঘটনায় মন্দির কমিটির সাধারণ সম্পাদক কনক রায় বাদী হয়ে গঙ্গাচড়া থানায় মামলা করেন। অভিযোগের সত্যতার প্রেক্ষিতে তাৎক্ষণিকভাবে তাকে গ্রেপ্তার করে থানায় নিয়ে আসে গঙ্গাচড়া পুলিশ।

এ বিষয়ে গঙ্গাচড়া মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ সুশান্ত কুমার সরকার জানান, প্রকাশ্য দিবালোকে মন্দির ভাঙার মামলায় চেয়ারম্যানকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

themesbazar1254120z

এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।

অত্র পত্রিকায় প্রকাশিত কোন সংবাদ কোন ব্যক্তি বা কোন প্রতিষ্ঠানের মানহানিকর হলে কর্তৃপক্ষ দায়ী নহে। সকল লেখার স্বত্ব ও দায় লেখকের।

Founder Md. Sakil