শুক্রবার, ২৫ জুন ২০২১, ১০:০৭ পূর্বাহ্ন

মানবিকতার দিকপাল আব্দুল্লাহ ফাউন্ডেশন

  • আপডেট টাইম : বুধবার, ১৩ মে, ২০২০, ৬.৪৭ পিএম
  • ৪৮৫ বার পঠিত
শাহরিয়ার কামাল :  বিশ্ব শাসকরা আজ হিমাগারে বন্দী। মুডঅফ কিলার করোনা’র নিষ্ঠুর আচরণে পরাজিত পৃথীবি আজ নিরব নিরুপায়। পাপীষ্ঠ মানবসভ্যতার পায়ে শিকল লেগেছে এবার। ক্ষমতার গুজরাটে প্রলয়ঙ্করী বিশ্ব মোড়লরা আজ নিঝুম পল্লীতে গভীর তন্দ্রায় আচ্ছহ্ন। নিষিদ্ধ পল্লীতে ক্ষমতা বিকিয়ে ফেরা বিবেকহীন বিশ্ব আজ পাল্লা দিয়ে ছুটছে কলঙ্কিত সভ্যতার নীল প্রাচীরে। শ্রোতের বিপরীতে পাল তোলা ডাচরা যখন বলছে আকাশেই হতে পারে করোনার ফয়সালা, শান্তিকামীরা আজ খানিকটা জোর দিয়েই বলছে সম্ভাবনাময় ইসলামের সোনালী বিজয়ের দিন আজ। প্রখ্যাত কন্ঠশিল্পী ভুপেন হাজারিকার গাওয়া গানের দুটি লাইন বিশ্ব বিবেককে আজ নতুন করে জাগ্রত করে তুলছে। শিল্পির গাওয়া মানুষ মানুষের জন্য জীবন জীবনের জন্য একটু সহানুভূতি কি মানুষ পেতে পারেনা? ও বন্ধু…মানুষ মানুষের জন্য….।
বাসযোগ্য পৃথিবী থেকে হঠাৎ ফেরার আহবান- যেতে হবে এ যেন কর্তার কঠিন হুংকার। এতে করে ধুয়ে মুছে অমল হবে পৃথীবি। তবেই কর্তা তার রাগ তুলে নিবেন। বলছিলাম নিরব ঘাতক কভিড-১৯ করোনা ভাইরাসের কথা। মৃত্যুপূরীতে পরিনত বিশ্বের চেহারা আজ কাঠপোঁড়ানো কয়লায় বিবর্ণ মলিন। চারিদিকে আর্তনাদ আর কান্নার করুণ শব্দ।বাঁচাও বাঁচতে চাই ইয়া আল্লাহ। নাফসি নাফসি এবং নাফসি, যেন করোনা প্রকোপ পথ আটকে দিয়েছে পুরো পৃথিবীর। ক্লান্তিহীন ছুটে ফেরা রাষ্ট্রের শিহরিত ইঙ্গিত ঘরে থাকো নইলে মরো! এমন আতঙ্কিত মুহুর্তে বাঁচার আগ্রহী মানুষগুলো কর্ম ছেড়ে রয়েছে বন্দীদশায়। কর্মহীনতায় অনাহারে অর্ধ্যাহারে দিন কাটানো নিম্ন আয়ের মানুষগুলোর দায় কে নিবে রাষ্ট্র না সরকার? সরকার সাধ্যমত চেষ্ঠা করলেও প্রয়োজনের তুলনায় অনেকটাই অপ্রতুল। উদ্ভুদ্ধ এ পরিস্থিতিতে মানুষ না খেয়ে কষ্ট পাবে এটা মেনে নিতে নারাজ বিশিষ্ট শিল্প উদ্যোক্তা-মানবিকতার দিকপাল -দানবীর লক্ষ্মীপুর ৪ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য আলহাজ আব্দুল্লাহ আল মামুন(এমপি)।  মানবতার বাতিঘরতুল্য জনপ্রিয় এই সেবক তার নিজ অর্থায়নে প্রতিষ্ঠিত চ্যারিটেবল ট্রাস্ট “আব্দুল্লাহ ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে করোনা প্রকোপের শুরু থেকেই রামগতি-কমলনগরের মানুষের মাঝে নগদ অর্থ সহ ত্রান সহায়তা দিয়ে আসছে।
জানা যায়, প্রচার বিমূখ এই ফাউন্ডেশনের লক্ষ অসহায় মানুষের পাশে থেকে নিরলস সেবা প্রদান করা। তবে এ পর্যন্ত দুই উপজেলার দশ হাজারেরও বেশি পরিবার আব্দুল্লাহ ফাউন্ডেশনে ত্রান সহায়তা পেয়েছেন বলে বিস্বস্ত সূত্র নিশ্চিত করেছে। মহামারির এ পরিস্থিতি শান্ত না হওয়া পর্যন্ত ফাউন্ডেশন তার তহবিল হতে দারিদ্র ও অসচ্চল পরিবারগুলোর পাশে থাকবেন বলে আশারবাণী শুনিয়েছেন ফাউন্ডেশনটির কর্ণধার সাবেক এমপি আব্দুল্লাহ আল মামুন।

লেখক : প্রকাশক ও সম্পাদক ডেইলি রূপান্তর বিডি।

 

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

themesbazar1254120z

এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।

অত্র পত্রিকায় প্রকাশিত কোন সংবাদ কোন ব্যক্তি বা কোন প্রতিষ্ঠানের মানহানিকর হলে কর্তৃপক্ষ দায়ী নহে। সকল লেখার স্বত্ব ও দায় লেখকের।

Founder Md. Sakil