রবিবার, ০১ অগাস্ট ২০২১, ০৯:৪৬ পূর্বাহ্ন

যাদের শান্তনায় সাহস শক্তি মনোবল ফিরে পেয়েছি: করোনা জয়ী সাংবাদিক

  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ১৮ জুন, ২০২০, ৫.৩০ এএম
  • ৯৩ বার পঠিত

রুপান্তর ডেস্কঃ

মহান আল্লাহর দরবারে লাখো কোটি শুকরিয়া আলহামদুলিল্লাহ।
আমার পরিবারের চারজন সদস্য (বাবা মা দু’ভাই) যখন প্রাণঘাতি করোনার ভয়াল ছোবলে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছিল তখন আল্লাহর অশেষ অনুগ্রহে সর্বস্তরের সুহৃদ শুভাকাঙ্ক্ষীর দোয়া আর ভালবাসায় আজকের এ মূহুর্তখানি কিছুটা স্বস্তি যোগিয়েছে।
আজই পরিবারের চারজন করোনা তৃতীয় নমুনা পরীক্ষায় নেগেটিভ সনাক্ত হওয়ায় মহান রবের দরবারে আবারো কৃতজ্ঞতা আলহামদুলিল্লাহ।
করোনাময় ক্রান্তিকালে যাদের সান্তনায় সাহস শক্তি মনোবল ফিরে পেয়েছি তাদের নিকট চিরকৃতজ্ঞ।
এসব মহান বীরদের কৃতজ্ঞতা না জানালে অকৃতজ্ঞই থেকে যাবো।
প্রথমত কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি চর কলাকোপা ইসলামিয়া মাদরাসার কর্তৃপক্ষের নিকট যারা আমার বাবার অসুস্থতার খবর জেনে স্ব উদ্যোগে দোয়ার আয়োজন করেছেন।যা আমি পরে জানতে পারি।কৃতজ্ঞ ও ভালবাসা প্রতিষ্ঠানটির জন্য।
একজন অভিভাবকরুপে অবতীর্ণ হয়ে আমাদের পাশে দাঁড়ানোর জন্য চীর ঋণী হয়ে থাকলাম কমলনগর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার রেজাউল করিম রাজিব স্যারের নিকট সাথে সাথে বারংবার পারিবারিক খোঁজ নেয়া ও সাহস যোগানোর জন্য ডাঃ মঞ্জু,ডাঃ নাছিরুজ্জামান ডাঃ ওয়ালি মাসুদের নিকট ও কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করছি।
প্রিয় ভাই কামাল উদ্দিন জীবন হাসপাতালের এম্বুলেন্স চালক রাসেলের অবদান অসীম।
হাসপাতালের আউটসোর্সিং ওয়ার্ডবয় চাঁন গাজী খান তাকেতো আমার একজন ভাই হিসেবে পরিবারের সদস্য করেই নিয়েছি মনে প্রাণে।সাথে সাথে স্বেচ্ছাসেবী তোফায়েলের অবদান ও ভুলার নয়।
কৃতজ্ঞ তোরাবগঞ্জ মাদরাসার সকল বর্তমান ও সাবেক শিক্ষক মহোদয় ম্যানেজিং কমিটির নেতৃবৃন্দের প্রতি।
আমার প্রাণপ্রিয় সংগঠন কমলনগর প্রেসক্লাবের সকল সদস্যসহ,সহকর্মী সাইফুল্লাহ হেলাল,ইসমাইল হোসেন বিপ্লব,ওয়াজি উল্লাহ জুয়েল, এ আই তারেক সহ সকলের নিকট কৃতজ্ঞ যারা অসহায় অবস্থায় খোঁজ নিয়ে ঋণী করেছেন।
কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি আহসান উল্লাহ হিরণ, ফয়সল আহমেদ রতন,খালেদ ছাইফুল্লাহ চেয়ারম্যান, মাষ্টার মফিজ উল্লাহ ও ডাঃ জসিম নানা, বড় ভাই কর্ণেল ইকবাল চৌধুরী প্রতি।
কমলনগর উপজেলার সকল মাদরাসা শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রধান,সকল শিক্ষক, সকল স্কুল শিক্ষকগণ যাদের দোয়ায় আজ আমরা আল্লাহর রহমতে বেঁচে আছি।
আমার প্রাথমিক শিক্ষা পরিবারের নিকট ও কৃতজ্ঞ ।
বিশেষ করে তোরাবগঞ্জ প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জনাব হুমায়ুন কবির যিনি আমাদের পরিবারকে ভালবাসার প্রমাণ দিয়েছেন।লরেঞ্চ কে হাটের প্রধান শিক্ষক জনাব আবদুর রহমান সেলিম যিনি একাধিকবার খোঁজ নিয়েছেন।এ ছাড়া আমার বাবার অসংখ্য ছাত্র বিশেষ করে মাহবুবুর রহমান বাবুল আবদুল কাদের জাফর ব্যাংকার ছাইফুর রহমান মাছুম সার্জেন্ট সোলায়মানসহ সকলের নিকট আমাদের পরিবার চীর ঋণী।
আমার বাবার অসংখ্য শিক্ষার্থী সতীর্থ আপনজন যারা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে দোয়া চেয়ে স্ট্যাটাস দিয়েছেন তাদের প্রতি বিনম্র কৃতজ্ঞ।
অসংখ্য মসজিদের সম্মানিত ইমাম খতিব যারা আমাকে ফোনে জানিয়েছেন যে,তারা আমাদের পরিবারের জন্য দোয়া করছেন তাদের প্রতি শ্রদ্ধা ও কৃতজ্ঞতা।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

themesbazar1254120z

এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।

অত্র পত্রিকায় প্রকাশিত কোন সংবাদ কোন ব্যক্তি বা কোন প্রতিষ্ঠানের মানহানিকর হলে কর্তৃপক্ষ দায়ী নহে। সকল লেখার স্বত্ব ও দায় লেখকের।

Founder Md. Sakil