মঙ্গলবার, ২২ জুন ২০২১, ১১:১৭ পূর্বাহ্ন

রামগতিতে অসংখ্য নেতা কর্মী নিয়ে কৃষকের ধান কেটে বাড়িতে পৌঁছে দিলেন ছাত্রলীগ(ভিডিও)- রুপান্তরবিডি

  • আপডেট টাইম : বুধবার, ২২ এপ্রিল, ২০২০, ৯.০৪ পিএম
  • ২৪৯ বার পঠিত

রুপান্তর বিডি নিউজ ডেস্কঃ

করোনাভাইরাস সংকটের মধ্যে ধান তোলায় বিপাকে পড়া কৃষকের সহযোগী হয়ে মাঠে নেমেছে ছাত্রলীগ। বিভিন্ন জেলায় দলবেঁধে ঐতিহ্যবাহী ছাত্র সংগঠনটির নেকাতর্মীরা ধান কেটে কৃষকের ঘরে তুলে দিচ্ছেন।

করোনাভাইরাস অতি সংক্রামক হওয়ার কারণে সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করতে চলছে সরকার ঘোষিত ছুটি। আর এপ্রিল থেকে মে মাস হলো বোরো ধান তোলার সময়। দেশে খাদ্যের বড় জোগান আসে এই বোরো ধান থেকে। কিন্তু শ্রমিক সংকটের কারণে ধান কাটতে বিপাকে পড়েছেন কৃষকরা।

এই অবস্থায় গত বৃহস্পতিবার ছাত্রলীগের সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় ও সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে শ্রমিক সংকট দেখা দেওয়ায় চলতি মৌসুমে নেতাকর্মীরা কৃষকদের ধান কেটে দেবেন বলে ঘোষণা দেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আহবানে সাড়া দিয়ে মঙ্গলবার থেকে জমিতে থাকা কৃষকের পাকা ধান কেটে দিচ্ছেন জেলা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

লক্ষ্মীপুর জেলার সব কয়েকটি উপজেলায় কৃষকদের সহযোগিতায় এগিয়ে এসেছেন স্থানীয় ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা।

আজ ২২ই এপ্রিল বুধবার রামগতি উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আকবর হোসেন সুখী ও সাধারণ সম্পাদক মোঃ সাদ্দাম হোসাইন ছাত্রলীগের নেতা কর্মী নিয়ে উপজেলার ২ নং চরবাদাম ইউনিয়নে কয়েকজন কৃষকের ধান কেটে ঘরে পৌঁছে দেন তারা।

শ্রমিকবেশে কাজ করার অভিজ্ঞতা ছাত্রলীগের জন্য নতুন কিছু নয় বলে মনে করেন দেশের প্রাচীন ও বৃহৎ ছাত্র সংগঠনট রামগতি উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আকবর হোসেন সুখী।

তিনি রুপান্তর বিডি নিউজকে বলেন,জেলা ছাত্রলীগের নির্দেশে ‘কাস্তে হাতে ধান কাটছে ছাত্রলীগ, মাথায় বয়ে নিয়ে তুলে দিচ্ছেন কৃষকের ঘরে। আগের কথা বাদই দিলাম, এমন চিত্র আমরা গতবছরও দেখেছি। আমাদের নেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা থেকে শুরু করে বিশিষ্টজনরাও এজন্য ছাত্রলীগের প্রশংসা করেছেন।’

উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ সাদ্দাম হোসাইন বলেন,‘দুর্দিনে ছাত্রলীগ মানুষের পাশেই থাকে। এটাই ছাত্রলীগের বিশেষ বৈশিষ্ট্য। এবারও করোনাভাইরাসের ভয়াবহ মহামারীতে বিপদে সবার আগে আমরা সব মানুষের পাশে দিনরাত আছি আর থাকব এবং এই কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।

সমতলের চেয়ে হাওরাঞ্চলে আগে ধান কাটা শুরু হয়। এরইমধ্যে সেখানে বোরো ধান পেকে জমিতে লুটিয়ে পড়ে নষ্টের উপক্রম হয়েছে।

এদিকে করোনাভাইরাসে সৃষ্ট সংকটের কারণে কৃষক সঠিক সময়ে ধান ঘরে তুলতে না পারলে দেশে খাদ্য সংকট হতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করছেন বিশেষজ্ঞরা। সঠিক সময়ে ধান ঘরে তুলতে কৃষককে নগদ টাকার প্রণোদনা দিতে সরকারকে পরামর্শও দিয়েছেন পিকেএসএফের চেয়ারম্যান অর্থনীতিবিদ ড. কাজী খলীকুজ্জামান আহমেদ।

গত কয়েকদিন ধরেই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার বক্তব্যে বারবার কৃষকদের পাশে দাঁড়াতে সবাইকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়েছেন। গত সোমবারও ঢাকা ও ময়মনসিংহ বিভাগের জেলাগুলোর কর্মকর্তাদের সঙ্গে করোনা পরিস্থিতি নিয়ে এক ভিডিও কনফারেন্সকালে ছাত্রলীগের ধান কেটে দেওয়ার প্রসংশা করেন সরকারপ্রধান।

লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলাসহ বিভিন্ন উপজেলায় কৃষকের ধান কেটে দিয়ে ঘরে তুলে দিচ্ছেন জেলা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মোহাম্মদ শাহাদাত হোসেন শরীফ ও সাধারণ সম্পাদক জিয়াউল করিম নিশান এর প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে তাদের বিভিন্ন ইউনিটের নেতা কর্মীকে বলা হয়েছে কৃষকের পাশে থাকার জন্য। তারই ধারা বাহিকতায় জেলা ছাত্রলীগ গত সোমবার এই কার্যক্রম নিজেরাই শুরু করেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

themesbazar1254120z

এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।

অত্র পত্রিকায় প্রকাশিত কোন সংবাদ কোন ব্যক্তি বা কোন প্রতিষ্ঠানের মানহানিকর হলে কর্তৃপক্ষ দায়ী নহে। সকল লেখার স্বত্ব ও দায় লেখকের।

Founder Md. Sakil