বুধবার, ০৪ অগাস্ট ২০২১, ০১:২৫ পূর্বাহ্ন

রূপগঞ্জে করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলায় সরকারী ত্রান বিতরণ

  • আপডেট টাইম : রবিবার, ৫ এপ্রিল, ২০২০, ৯.১৫ পিএম
  • ৯৩ বার পঠিত

আজিজুল হক মোল্লা, রূপগঞ্জ প্রতিনিধি :  রুপগঞ্জে করোনা ভাইরাস পরিস্থতি মোকাবেলায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পাঠানো সরকারী ত্রাণ সামগ্রী বস্ত্রও পাট মন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী বীর প্রতিকের নির্দেশনায় ভোলাব দাউদপুর সদর ইউনিয়ন, কায়েতপাড়া, ভূলতা, গোলাকান্দাইল এবং তারাবো কাঞ্চন পৌরসভায় বাড়িতে বাড়িতে পৌছে দিচ্ছেন রুপগঞ্জ উপজেলা পরিষদেও চেয়ারম্যান আলহাজ মো শাহজাহান ভুইয়া ,উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মমতাজ বেগম এর সাথে সহযোগিতা করছেন প্রতিটি ইউনিয়নের সভাপতি,সাধারণ সম্পাদক চেয়ারম্যান সহ আওয়ামীলীগের বিভিন্ন নেতৃবৃন্দ । রুপগঞ্জে যাতে মহামারী করোনা ভাইরাস যেন ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে না পড়তে পারে তার জন্য প্রতিটি ইউনিয়ন ও পৌরসভায় জীবাণুনাশক ঔষধ প্রতিদিন ছিটানো হচ্ছে।
রুপগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মমতাজ বেগম তার একমাসের বেতন ও বৈশাখের উৎসব ভাতা জেলাপ্রশাসকের ত্রাণ তহবিলে দেন।সরকারের পাশাপাশি অসহায় মানুষের পাশে দাড়ালেন ইউএনও মমতাজ বেগম।
রুপগঞ্জ উপজেলায় বসুন্ধরা গ্রুপের পক্ষথেকে ২৫০০০পরিবার ও রংধনু গ্রুপের চেয়ারম্যান কায়েতপাড় ইউনিয়নের চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম ২৫০০০ সহ মোট ৫০হাজার পরিবারকে পর্যায়ক্্রমে ত্রাণ সহায়তা দিয়ে যাচ্ছে। রূপগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি তাবিবুল কাদির তমাল ব্যওিগত গাড়ীগুলো রুপগঞ্জের করোনা সংক্রান্ত সমস্যায় এ্যাম্বুলেন্স হিসেবে সার্ভিস দিবে বলে ঘোষণা করেন। কাঞ্চন পৌরসভার মেয়র মো রফিকুল ইসলাম এলাকার সকল খেটে খাওয়া দিনমজুর গরীব মানুষের মাঝে সরকারী খাদ্য সামগ্রী পৌছে দিচ্ছেন। ভোলাব ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আলমগীর হোসেন টিটু,ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি আবুল হোসেন ,সাধারণ সম্পাদক হাসান আশকারী সহ ইউনিয়নের অন্যান্য নেতৃবৃন্দ মাননীয় প্রধাানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে গরীব দিনমজুর এর মাঝে প্রতিদিন বিভিন্ন ওয়ার্ডের ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করা হচ্ছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

themesbazar1254120z

এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।

অত্র পত্রিকায় প্রকাশিত কোন সংবাদ কোন ব্যক্তি বা কোন প্রতিষ্ঠানের মানহানিকর হলে কর্তৃপক্ষ দায়ী নহে। সকল লেখার স্বত্ব ও দায় লেখকের।

Founder Md. Sakil