বৃহস্পতিবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২২, ০৬:৩৪ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
চরফ‍্যাশনে মাদকসহ চারজন গ্রেফতার উত্তর চরমানিকা লতিফিয়া দাখিল মাদ্রাসার শিক্ষার্থীদের মধ্যে বই বিতরণ ইচ্ছার উদ্যোগে হেফজখানায় আল-কোরআন উপহার প্রদান মৃত্যুদন্ডপ্রাপ্ত পলাতক আসামী র‌্যাবের হাতে গ্রেফতার ভৈরবে মিথ্যা মামলায় আসামী করার প্রতিবাদে মানববন্ধন, বিক্ষোভ ও সংবাদ সম্মেলন ভৈরবে পুলিশ হত্যা চেষ্টা মামলার আসামী র‌্যাবের হাতে গ্রেফতার বিজয় দিবসে এসটিএসে ফ্রি চিকিৎসা পেলো ৭ ঠোঁট কাটাসহ পাঁচশতাধিক মানুষ ধর্ষন ও অশ্লীল ভিডিও ধারণে শশিভূষণ থানায় মামলা-গ্রেফতার-১ ইচ্ছা মানব উন্নয়ন সংস্থার উদ্যোগে বিজয় দিবস উদযাপন অনলাইন পত্রিকা সংবাদ চিত্র’র আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু

শ্রীমঙ্গলে অনুমোদন ছাড়াই বহুতল ভবন নির্মাণের অভিযোগ

  • আপডেট টাইম : সোমবার, ২৯ জুন, ২০২০, ১১.২৪ পিএম
  • ১৭৬ বার পঠিত

শ্রীমঙ্গল প্রতিনিধি:

মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গল শহরে অনুমোদন ছাড়াই বহুতল ভবন নির্মানের অভিযোগ পাওয়া গেছে। ওই ভবন নির্মাণে নিম্নমানের নির্মাণ সামগ্রী ব্যবহার যথাযথ প্রক্রিয়ায় ভবন নির্মাণ না করায় আশপাশের বেশ কিছু বাড়ি ঝুঁকির মধ্যে পড়েছে-এমন অভিযোগে স্থানীয় বাসিন্দারা শ্রীমঙ্গল পৌরসভা ও থানায় লিখিত অভিযোগ করার খবর পাওয়া গেছে। পৌরসভার ভেতর অনুমোদন ছাড়া কিভাবে বহুতল ভবন নির্মাণ হয় তা নিয়ে সাধারণ মানুষের মধ্যে প্রশ্ন দেখা দিয়েছে। তবে, নির্মাণাধীন বাসার মালিক পক্ষের লোকজন জানিয়েছেন, যথারীতি সকল নিয়ম মেনে ভবন নির্মাণ কাজ করা হচ্ছে। অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, শ্রীমঙ্গল পৌরসভার মাষ্টারপাড়া এলাকায় জনৈক রাধা কান্ত বিশ্বাস নামে এক ব্যাক্তি গত বছর আড়াই শতক জায়গা ক্রয় করেন। এবছর শুরুতে সেখানে মাটি ভরাট করে ৪ তলা বিশিষ্ট একটি দালান নির্মানের কাজ শুরু করেন। বর্তমানে ২তলার কাজ সম্পন্ন হওয়ার পর সেখানকার স্থানীয় বাসিন্দারা আপত্তি জানিয়ে গত ২৫ মে শ্রীমঙ্গল পৌরসভায় একটি লিখিত অভিযোগ করেন। অভিযোগে বলা হয় পৌরসভায় আপত্তি জানানোর পর ওইদিন থেকে ভবন নির্মাণের কাজ বন্ধ।

এলাবাসীর অভিযোগ পুকুর ভরাট করে পাইলিং ছাড়া বহুতল নির্মাণ এবং এলাবাসী চলাচলের রাস্তা দখল করে ভবন নির্মাণ করায় একদিকে ঝুঁকি বেড়েছে অন্যদিকে রাস্তা বন্ধ থাকায় চলাচল ব্যহত হবে। এলাবাসীর অভিযোগ পুকুর ভরাট করে পাইলিং ছাড়া বহুতল নির্মাণ এবং এলাবাসী চলাচলের রাস্তা দখল করে ভবন নির্মাণ করায় একদিকে ঝুঁকি বেড়েছে অন্যদিকে রাস্তা বন্ধ থাকায় চলাচল ব্যহত হবে। স্থানীয় বাসিন্দা তিমির বনিক বলেন, উনি তার বিল্ডিং নির্মাণ করবেন সেখানে আমাদের অভিযোগ থাকবে কেন, কিন্তু উনি পাইলিং না করায় এবং রাস্তায় বিল্ডিং করায় আমরা এলাকাবাসী অভিযোগ দিয়েছি। আমাদের সমস্যা না হলে অভিযোগের দরকার ছিলনা। প্রতিবেশি সারওয়ার জাহান চঞ্চল জানান, নিয়ম মত রাস্তা থেকে ৩ ফুট ভেতরে বিল্ডিং করার কথা থাকলেও এই ব্যক্তি রাস্তার দেড়ফুট ভেতরে ঢুকিয়েছেন । পুকুরের উপর পাইলিং ছাড়াই ৩ তলা তুলেছেন এই বিষয়টি নিয়েই আমাদের আপত্তি। এবং আমরা অভিযোগ দিয়েছি কর্তৃপক্ষের কাছে।

আরেক প্রতিবেশি কানু সাহা অভিযোগ করে বলেন এখানে একটি পুকুর ছিলো যেটি ভরাট করে নিম্নমানের নির্মাণ সামগ্রী দিয়ে বিল্ডিংটি তৈরী করা হচ্ছে যা অত্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণ। তাই আমরা এলাকার সবাই মিলে পৌরসভা এবং থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেছি বর্তমানে কাজ বন্ধ রয়েছে।

অভিযোগের ব্যাপারে জমির মালিক রাধা কান্ত বিশ্বাস বলেন, আমি পৌরসভার লিখিত আবেদন করি কয়েকমাস আগে। এবং স্বীকৃত ইঞ্জিনিয়ার দিয়ে পরিকল্পনা করেই কাজ শুরু করি। আমার আবেদনের পর পৌরসভা থেকে মৌখিক অনুমোদন দিয়ে আমাকে বলা হয়েছিল কাজ শুরু করেন , আমাদের প্রসেস করতে একটু সময় লাগবে। আমি রাস্ত দখল করিনি বরং অভিযোগ দিয়েছেন যে ২/৩ জন তাদের কেউ কেউ রাস্তার উপর ঘর করেছেন। ব্যক্তিগত হিংসা থেকে আমাকে হয়রানি করা হচ্ছে।

শ্রীমঙ্গল থানার এস আই মো.সাইফুল বলেন, এ বিষয়ে আমরা একটা অভিযোগ পেয়ে সেখানে গিয়ে কাজ বন্ধ করে দিয়ে আসি। আর তাদেরকে বলেছি ভবন নির্মাণ এর পৌরসভার অনুমতি পত্র আমাদেরকে দেখানোর জন্য। কিন্তু এখন পযন্ত কাগজপত্র নিয়ে কেউ আসেনি। এ ব্যাপারে শ্রীমঙ্গল পৌরসভার প্রকৌশলী জহির আহমেদ বলেন, আমাদের কাছে একটি অভিযোগ করেছেন মাষ্টার পাড়া এলাকাবাসী সেই অভিযোগের পরিপেক্ষিতে আমার একটি নোটিশ পাঠিয়ে ভবন মালিককে কাজ বন্ধ রাখার পরামর্শ দেই এবং আরেকটি নোটিশে ভবন এলাকা ও রাস্তা জরিপ করার বিষয়ে অবগত করানো হয় এবং জরিপের সিদ্ধান্ত পরবর্তীকালে জানিয়ে দেওয়া হবে বলে জানানো হয়।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

themesbazar1254120z

এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।

অত্র পত্রিকায় প্রকাশিত কোন সংবাদ কোন ব্যক্তি বা কোন প্রতিষ্ঠানের মানহানিকর হলে কর্তৃপক্ষ দায়ী নহে। সকল লেখার স্বত্ব ও দায় লেখকের।

Founder Md. Sakil