শুক্রবার, ২১ জানুয়ারী ২০২২, ০১:২১ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
চরফ‍্যাশনে মাদকসহ চারজন গ্রেফতার উত্তর চরমানিকা লতিফিয়া দাখিল মাদ্রাসার শিক্ষার্থীদের মধ্যে বই বিতরণ ইচ্ছার উদ্যোগে হেফজখানায় আল-কোরআন উপহার প্রদান মৃত্যুদন্ডপ্রাপ্ত পলাতক আসামী র‌্যাবের হাতে গ্রেফতার ভৈরবে মিথ্যা মামলায় আসামী করার প্রতিবাদে মানববন্ধন, বিক্ষোভ ও সংবাদ সম্মেলন ভৈরবে পুলিশ হত্যা চেষ্টা মামলার আসামী র‌্যাবের হাতে গ্রেফতার বিজয় দিবসে এসটিএসে ফ্রি চিকিৎসা পেলো ৭ ঠোঁট কাটাসহ পাঁচশতাধিক মানুষ ধর্ষন ও অশ্লীল ভিডিও ধারণে শশিভূষণ থানায় মামলা-গ্রেফতার-১ ইচ্ছা মানব উন্নয়ন সংস্থার উদ্যোগে বিজয় দিবস উদযাপন অনলাইন পত্রিকা সংবাদ চিত্র’র আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু

মিঠাপুকুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের লকডাউন প্রত্যাহার-

  • আপডেট টাইম : সোমবার, ৪ মে, ২০২০, ১০.৫৭ এএম
  • ১৩৪ বার পঠিত

মোঃ আরিফ শেখ, রংপুরঃ রংপুরের মিঠাপুকুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের লকডাউন প্রত্যাহার করা হয়েছে। আজ রবিবার থেকে সকল কার্যক্রম চালু করা হয়েছে।

স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সেটির চিকিৎসক ও টেকনোলজিষ্ট সহ ৩ জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার পরে হাসপাতালটি কর্তৃপক্ষের নির্দেশে লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছিল। ১৪ দিন অতিবাহিত হওয়ার পর রবিবার থেকে পুরোদমে সকল কার্যক্রম চালু বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন মিঠাপুকুর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পঃপঃ কর্মকর্তা ডাঃ আব্দুল হাকিম।

অপরদিকে চিকিৎসা সেবায় নিয়োজিত চতুর্থ শ্রেণীর কর্মচারীরা তাদের স্বাস্থ্য সুরক্ষায় প্রয়োজনীয় উপকরণ না পাওয়ার অভিযোগ তুলেছেন। সুরক্ষা ছাড়াই জীবনের ঝুকি নিয়ে জরুরী চিকিৎসা সেবা দিচ্ছেন কর্মরত এসব কর্মচারীরা। এনিয়ে তাদের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। তারা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স চত্বরে নিজেদের সুরক্ষায় পিপিই, মাস্ক ও হ্যান্ডগ্লোবস সহ বর্তমান পরিস্থিতিতে নিজেদের সুরক্ষায় এসব সরঞ্জামের দাবি করেন।

ভুক্তভোগী চতুর্থ শ্রেণীর কর্মচারী বিকাশ, রবিউল, গৌরী, নার্গিস, আলাউদ্দিন জানান, এই স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা সেবায় নিয়োজিত ডাক্তার-কর্মচারীদের সুরক্ষায় সরকারী বরাদ্দের পাশাপাশি উপজেলা পরিষদ হতে ৩ লক্ষ ৭৫ হাজার টাকা বরাদ্দ দেওয়া হলেও তারা তাদের প্রয়োজনীয় সুরক্ষা সরঞ্জাম পাচ্ছেন না। তাদেরকে এ পর্যন্ত মাত্র একটি করে অতি নিম্নমানের ওয়ান টাইম পিপিই, মাস্ক ও হ্যান্ডগ্লোবস দেওয়া হযেছে। যা ব্যাবহারের পর আর ব্যাবহারযোগ্য নয়।

এ বিষয়ে মিঠাপুকুর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পঃপঃ কর্মকর্তা ডাঃ আব্দুল হাকিম বলেন, চতুর্থ শ্রেণীর কর্মচারীদেরকে ১সেট করে পিপিই, মাস্ক ও হ্যান্ডগ্লোবস দেওয়া হয়েছে। পিপিই গুলো ধুয়েও পরিধান করা সম্ভব। এখন তাদের নিজেদের সুরক্ষা নিজেদেরই নিতে হবে। স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা সেবায় নিয়োজিত ডাক্তার-কর্মচারীদের সুরক্ষায় সরকারী বরাদ্দের পাশাপাশি উপজেলা পরিষদ হতে ৩ লক্ষ ৭৫ হাজার টাকা বরাদ্দ প্রাপ্তির বিষয়ে জানতে চাইলে বলেন, ওই টাকায় ৮৫০ টাকা দরে প্রায় ১ লক্ষ ৭৫ হাজার টাকায় ৭৮জন ষ্টাফের জন্য ২০৫টি পিপিই ক্রয় করা হয়েছে। অবশিষ্ট টাকা দিয়ে সাবান সহ অন্যান্য সামগ্রী ক্রয় করা হয়েছে। যখন যা বরাদ্দ আসছে তা সঠিকভাবে ব্যয় করা হচ্ছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

themesbazar1254120z

এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।

অত্র পত্রিকায় প্রকাশিত কোন সংবাদ কোন ব্যক্তি বা কোন প্রতিষ্ঠানের মানহানিকর হলে কর্তৃপক্ষ দায়ী নহে। সকল লেখার স্বত্ব ও দায় লেখকের।

Founder Md. Sakil