মঙ্গলবার, ২২ জুন ২০২১, ০৯:৪২ পূর্বাহ্ন

টেকনাফ থানা পুলিশের সাথে বন্দুকযুদ্ধের ঘটনায় ৩ জন ডাকাত নিহত, আহত ৫ জন পুলিশ সদস্য, উদ্ধার করা হয় বিপুল পরিমান অস্ত্রসহ ইয়াবা

  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ৭ মে, ২০২০, ৪.০৮ এএম
  • ১৫৪ বার পঠিত

দেলোয়ার হোছাইন (মহেশখালী কক্সবাজার) প্রতিনিধিঃ অদ্য ০৬/০৫/২০২০খ্রিঃ তারিখ ভোর অনুমান ০৪:৩০ ঘটিকায় কক্সবাজার জেলার টেকনাফ মডেল থানাধীন হ্নীলা ইউপিস্থ রঙ্গীখালী গাজীপাড়া সাকিনের পশ্চিম দিকে পাহাড়ের পাদদেশে অপহৃত বাঙ্গালী ভিকটিম সাহেদ ও ইদ্রিসদ্বয়সহ রোহিঙ্গা ডাকাত আব্দুল হাকিম এবং তার অন্যান্য সহযোগী ডাকাতদের নিয়ে অবস্থান করছে মর্মে টেকনাফ থানা পুলিশ গোপনসূত্রে সংবাদ পান। প্রাপ্ত সংবাদের ভিত্তিতে টেকনাফ থানার অফিসার ইনচার্জ জনাব প্রদীপ কুমার দাশ, বিপিএম, পিপিএম(বার) সঙ্গীয় অফিসার ও ফোর্সসহ ০৬/০৫/২০২০খ্রিঃ ভোর অনুমান ০৬:৩০ ঘটিকায় বর্ণিত স্থানে পৌঁছলে ডাকাতদলের সদস্যরা গুলি করতে করতে ঘটনাস্থল হতে পালিয়ে যায়। পুলিশ ঘটনাস্থল হতে বিপুল পরিমাণ অস্ত্র ও মাদক উদ্ধার করতে সক্ষম হন। পুলিশ ও ডাকাত দলের গোলাগুলিতে গুলিবিদ্ধ হয়ে আহত ৩ জন ব্যক্তিকে ঘটনাস্থল হতে উদ্ধারপূর্বক দ্রুত চিকিৎসার জন্য টেকনাফ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তার প্রাথমিক চিকিৎসা প্রদান করতঃ উন্নত চিকিৎসার জন্য তাদেরকে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে রেফার্ড করলে উক্ত হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তারা তারা মৃত্যুবরণ করে। উল্লেখ্য যে, ডাকাত আঃ হাকিম আপহৃত ভিকটিমদের নিয়ে পাহাড়ে আত্মগোপণে থাকায় তাদেরকে উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি। আঃ হাকিম ডাকাতকে গ্রেফতারসহ অপহৃত ভিকটিমদের উদ্ধারের লক্ষ্যে অভিযান অব্যাহত আছে।

ক) নিহত ডাকাতদের নামঃ
১। সৈয়দ আলম(৩৮), পিতা-মৃত আব্দুল মজিদ@ ভোলাইয়া বৈদ্য, সাং-রঙ্গীখালী, জুম্মাপাড়া, হ্নীলা ইউপি, থানা-টেকনাফ
২। নুরুল আলম(৩৭), পিতা-মৃত আব্দুল মজিদ@ ভোলাইয়া বৈদ্য, সাং-রঙ্গীখালী, জুম্মাপাড়া, হ্নীলা ইউপি, থানা-টেকনাফ
৩। মোঃ মনাইয়া(২২), পিতা-সাব্বির আহম্মদ, সাং-রঙ্গীখালী, জুম্মাপাড়া, হ্নীলা ইউপি, থানা-টেকনাফ, সর্বজেলা-কক্সবাজার।

খ) ঘটনার তারিখ ও সময়ঃ- ০৬/০৫/২০২০খ্রিঃ সকাল ০৬:৩০ ঘটিকা।
গ) ঘটনাস্থলঃ-টেকনাফ মডেল থানাধীন হ্নীলা ইউপিস্থ রঙ্গীখালী গাজীপাড়া সাকিনের পশ্চিম দিকে পাহাড়ের পাদদেশে।
ঘ) উদ্ধারঃ
১। ৫(পাঁচ) টি একনলা বন্দুক,
২। ২(দুই) থ্রি কোয়াটার বন্দুক,
৩। ১০(দশ) টি এলজি,
৪। ১(এক) টি বিদেশী পিস্তল,
৫। ১১(এগার) রাউন্ড রাইফেলের গুলি,
৬। ৮(আট) রাউন্ড পিস্তলের গুলি,
৭। ২০৫(দুইশত পাঁচ) রাউন্ড তাজা কার্তুজ,
৮। ৭২ (বাহাত্তর) রাউন্ড কার্তুজের খোসা,
৯। ৫৬,০০০ (ছাপান্ন হাজার) পিস ইয়াবা ট্যাবলেট,
১০। ৩(তিন) সেট বিজিবি ও ১০(দশ) সেট পুলিশের পোশাক।
ঙ) পুলিশ কর্তৃক গুলি বর্ষনের পরিমাণ – শটগান হতে ৩২০ রাউন্ড, পিস্তল হতে ০৯ রাউন্ড, চায়না এসএমজি হতে ২৫ রাউন্ড, চায়না রাইফেল হতে ১৫ রাউন্ড ফায়ার এবং ০৯ টি সাউন্ড গ্রেনেড এর বিষ্ফোরন।
চ) আহত পুলিশ সদস্যরা হলেনঃ- পুলিশ পরিদর্শক(নিঃ) জনাব লিয়াকত আলী, এসআই(নিরস্ত্র)মশিউর রহমান, এএসআই(নিরস্ত্র)সনজীব দত্ত, এএসআই(নিরস্ত্র)মিঠুন কুমার ভৌমিক।
এ ব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

themesbazar1254120z

এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।

অত্র পত্রিকায় প্রকাশিত কোন সংবাদ কোন ব্যক্তি বা কোন প্রতিষ্ঠানের মানহানিকর হলে কর্তৃপক্ষ দায়ী নহে। সকল লেখার স্বত্ব ও দায় লেখকের।

Founder Md. Sakil