শুক্রবার, ১৮ জুন ২০২১, ০৫:৪৮ পূর্বাহ্ন

করোনা রোধে ডাঃ আকিলের চার পরামর্শ

  • আপডেট টাইম : বুধবার, ২৭ মে, ২০২০, ৩.০৮ পিএম
  • ৫০৪ বার পঠিত

 

রূপান্তর বিডি নিউজ ডেস্কঃ
নভেল করোনা ভাইরাস কভিড ১৯ সংক্রমন দিনদিন বেড়েই চলছে। এতে
আতংকিত না হয়ে বরং সচেতন হওয়াটাই জরুরী। এখনো করোনা নিরাময়ে শতভাগ সফল কোন ঔষধ আবিস্কার হয়নি। কিন্তু আমাদের জীবনযাত্রার মান এবং খাদ্যাভ্যাস’ই পারে করোনাকে প্রতিরোধ করতে। এ বিষয়ে আমার কিছু পরামর্শ।

১.জিংক করোনা ভাইরাস সহ আরো অনেক ভাইরাস যারা শ্বসনতন্ত্র আক্রমণ করে,এদের প্রতিরোধে জিংক খুব কার্যকর।জিংক এর গুরুত্ব এতোটাই বেশি যে আক্রান্ত সব রোগিকে আমারা আলাদা করে জিংক ট্যাবলেট দিয়ে থাকি। জিংক যেসব খাবারে রয়েছেঃ
পালংশাক, রসুন,মাশরুম
বাদাম ও কুমড়োর বীচি
গরু ও মুরগির মাংস
বাজারে জিংক ট্যাবলেট পাওয়া যায়।দাম ও বেশ কম। সেক্ষেত্রে সকালে ও রাতে ১ টা করে ট্যাবলেট গ্রহন করতে পারেন।
২. ভিটামিন সিঃ
ভিটামিন সি ও করোনা প্রতিরোধে মহৌষধ। ভিটামিন-সি পেতে যেসব খাবার খেতে পারেন-
কাচা মরিচ (১০০ গ্রাম কাচা মরিচে প্রায় ২৪২ মিগ্রা ভিটামিন সি রয়েছে)
পেয়ারা,বেল মরিচ,পুদিনা পাতা
পেপে,কমলা,
গাড় সবুজ শাক,ব্রকলি, এছাড়াও
বাচ্চাদের সিভিট খেতে দেয়া যেতে পারে।
৩.বিটা ক্যারোটিন-
এই ভিটামিন সব ধরনের রোগ প্রতিরোধে কার্যকর –
আম(১০০গ্রামে ৫৪ আইইউ)
টমেটো (১০০ গ্রামে ৪২ আই ইউ)
গাজর(প্রচুর বিটা ক্যারোটিন রয়েছে)
পালংশাক, মিস্টি কুমড়া,জাম্বুরা, কলিজা,দুধ,মাখন
৪.ভিটামিন ডি-
বেশ কিছু গবেষণা বলছে যাদের শরিরে ভীটামিন ডি এর মাত্রা কম করোনা আক্রান্ত হলে তাদের মৃত্যু ঝুঁকি বেশি।
তাই ভিটামিন-ডি পেতে প্রতিদিন যথাসম্ভব খালি গায়ে ৪০ মিনিট রোদে বসুন।

আশাকরি উপরোক্ত খাদ্যাভ্যাস আপনাদের করোনা প্রতিরোধে সাহায্য করবে। তবে অনুরোধ রইলো, ডাক্তারের পরামর্শ ছাড়া শুধু অনলাইনে দেখে হাইড্রোকক্সিক্লোরোকুইন,আইভারমেক্টিন, ডক্সিসাইক্লিন জাতীয় কোন ঔষধ গ্রহন করবেন না। কারন এদের প্বার্শপ্রতিক্রিয়ায় যে কারো মৃত্যু পর্যন্ত হতে পারে।

ভালো থাকুন, সুস্থ থাকুন,নিরাপদ থাকুন, সামাজিক দুরত্ব মেনে চলুন।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

themesbazar1254120z

এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।

অত্র পত্রিকায় প্রকাশিত কোন সংবাদ কোন ব্যক্তি বা কোন প্রতিষ্ঠানের মানহানিকর হলে কর্তৃপক্ষ দায়ী নহে। সকল লেখার স্বত্ব ও দায় লেখকের।

Founder Md. Sakil