বৃহস্পতিবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২১, ১০:৩৮ অপরাহ্ন

ভৈরবে নতুন করে ৩৮ জনের করোনা শনাক্ত, মোট শনাক্ত ৩০৫ , মৃত্যু ৫ , সুস্থ ৭৩

  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ৯ জুন, ২০২০, ২.০৩ এএম
  • ১৭২ বার পঠিত

 

মোঃ মিজানুর রহমান পাটোয়ারী, কিশোরগঞ্জ জেলা প্রতিনিধিঃ-

কিশোরগঞ্জের ভৈরবে নতুন করে আরো ৩৮ জনের করোনাভাইরাস কোভিড-১৯ পজেটিভ শনাক্ত হয়েছে। সোমবার ( ৮ জুন ) রাতে পাওয়া নমুনা পরীক্ষার রিপোর্টে এই তথ্য জানা গেছে।

কিশোরগঞ্জের সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ মুজিবুর রহমান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ মুজিবুর রহমান জানান, ভৈরব উপজেলায় ( ৫ জুন ) সংগৃহীত ৪৩ জনের নমুনার মধ্যে পুরাতন দুইজনসহ মোট ৩৮ জনের কোভিড-১৯ পজেটিভ এসেছে। বাকি ৩ জনের রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে।

এ পর্যন্ত মোট পরীক্ষা হয়েছে ( ১৫৮৭ ) তারমধ্যে মোট রেজাল্ট আসছে ( ১৩২২ )

এছাড়াও কোভিড-১৯ পজেটিভ এসেছে। ফলে ভৈরব উপজেলায় নতুন করে মোট ৩৮ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে।

গত রবিবার ( ৭ জুন ) পর্যন্ত ভৈরব উপজেলায় করোনা শনাক্তের সংখ্যা ছিল ২৬৭ জন। সোমবার ( ৮ জুন ) নতুন করে আরো ৩৮ জনের করোনা শনাক্ত হওয়ায় বর্তমানে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৩০৫ জনে।

মোট শনাক্ত ৩০৫ জনের মধ্যে পাঁচজন মৃত্যু ব্যক্তি রয়েছেন।

এছাড়া গত রবিবার ( ৭ জুন ) পর্যন্ত ভৈরব উপজেলায় করোনাভাইরাস থেকে সুস্থ হওয়ার সংখ্যা ছিল ৭২ জন। সোমবার ( ৮ জুন ) নতুন করে আরো ১ জন সুস্থ হয়েছেন। ফলে উপজেলায় মোট সুস্থ হওয়ার সংখ্যা এখন ৭৩ জন।

ভৈরব উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ বুলবুল আহমেদ জানান, গত ৪, ৬, ৭ ও ৮ জুন এর সংগ্রহকৃত নমুনার রিপোর্ট এখনো পেন্ডিং রয়েছে।

বিশেষ বিজ্ঞপ্তিঃ
গত ০৫.০৬.২০২০ এর টোটাল ১১২ টি নমুনার মধ্যে ৯৯টির রিপোর্ট এসেছে। বাকি ১৩টির রিপোর্ট আগামীকাল আসবে। যাদের রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে, তাদের ফোনের মাধ্যমে জানিয়ে দেওয়া হবে।

ডাঃ বুলবুল আহমেদ বলেন, ভৈরবের পরিস্থিতি অবনতির দিকে যাচ্ছে। ভীড় পরিহার করুন, সোশ্যাল ডিসট্যান্সিং বজায় রাখুন। স্বাস্থ্য বিভাগের নির্দেশিকা মেনে চলুন। নিজেকে নিরাপদ রাখুন ।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

themesbazar1254120z

এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।

অত্র পত্রিকায় প্রকাশিত কোন সংবাদ কোন ব্যক্তি বা কোন প্রতিষ্ঠানের মানহানিকর হলে কর্তৃপক্ষ দায়ী নহে। সকল লেখার স্বত্ব ও দায় লেখকের।

Founder Md. Sakil